ক্যাটেগরিঃ প্রবাস কথন

 
24_2

 

প্রবাসীরা প্রত্যাশিত অর্থ দেশে পাঠাতে পারছেন না! গত পাঁচ বছরের মধ্যে সব থেকে বড় ধস নেমেছে এই মাসের রেমিটেন্সে। খবরটা পড়ে ভাবতেছিলাম এমনই তো হবার কথা ছিলো, ধস তো নামবেই। যে কোন কিছুর সঠিক পরিচর্যা না করে ভালো ফসল আশা করাটাই বোকামি।

অন্য দেশের কথা নাইবা বললাম, শুধু আমিরাতের কথা বলতে গেলেও বলা শেষ হবেনা। কতো যে মানবেতর জীবন কাঠাচ্ছে এখানের প্রবাসীরা। বিগত ৫ বছর থেকে এইসব নিয়ে কম লেখালেখি হয় নাই।

সব জায়গায় ধীরে ধীরে শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধি পায়, আর এখানে প্রায় বাংলাদেশি শ্রমিকদের বেতন যা ছিলো তার থেকে আরো কমিয়ে দেওয়া হয়। এরা না পারছে কাজ বদলে অন্য কাজে যেতে কারন ভিসা বদলানোর সুযোগ নেই,  অন্যদিকে না পারছে দেশে ফেরত যেতে। এক ধরনের বাধ্য হয়েই পড়ে আছে। আর এই সুযোগটা কাজে লাগিয়ে ফায়দা নিচ্ছে মালিক পক্ষ।

এইসবের চাক্ষুষ সাক্ষী আমি নিজে, প্রায় প্রতিদিন এমন কেস দেখতে হয়। কিন্তু বড়ই পরিতাপের ব্যাপার এই ব্যাপারগুলো নিয়ে আমাদের সরকারের কোন মাথা ব্যথা নেই। মাঝে মধ্যে কারো দরদ উকি দিলেও তা শুধু মুখের কথাতেই থেকে যায়, কাজের কিছু হয়না। প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া বা নতুন ভিসা না হোক অন্তত এখানে যারা রয়েছে তাঁদের ব্যাপারগুলো টেক কেয়ার করা, এইসব ভাবার একটুও ফুসরত কি নেই সরকারের?

প্রবাসী লেখক,
কাওছার আহমদ।
আবুধাবী, আমিরাত।
facebook.com/kawsar8

ইমেইল- kkoysor@hotmail.com