ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা, ব্লগ সংকলন: সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ড

 
sagarRuni

সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি খুন হওয়ার ১৯ দিন পরও খুনের বিষয়ে সন্তোষজনক কোন রিপোর্ট দিতে পারেনি পুলিশ বাহিনী। বিভিন্ন নাটকীয়তার মাধ্য দিয়ে পার করে দিলেন ১৯টি দিন। কখনো খুনির আঙ্গুলের ছাপ অস্পষ্ট আবার কখনো এক ফুট আট ইঞ্চি গ্রিল কাটার গল্প, অবশেষে খুনির ব্যাপারে নিশ্চিত তবে তদন্তের স্বার্থে প্রকাশ করা হচ্ছে না, এরূপ আরও কত রকম কথার ফুলঝুরি। সাগর-রুনির সহকর্মী সাংবাদিকরা থেমে নেই তাদের আন্দোলন চলছে চলবেই যতক্ষণ না খুনিরা গ্রেপ্তার না হয় এবং তাদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা না হয়। সরকারের বিভিন্ন আশ্বাস, বিরোধী দলের আন্দোলনের হুমকি, সাংবাদিক ভাইদের অব্যাহত আন্দোলন। এতকিছুর পরেও খুনিরা গ্রেপ্তার হচ্ছেনা কেন। তাহলে কি খুনিরা সরকার বা বিরোধী দলের চেয়ে অনেক বেশী শক্তিশালি। যে সরকার বা গোয়েন্দারা তাদের ধারে কাছেও যেতে পারছেনা? তাদের কি এতই শক্তি, যে তাদের গ্রেপ্তার করলে সরকার ক্ষমতার মসনদও হারাতে পারে? যদি তাঁরা এতই শক্তিশালি হয়ে থাকে তাহলে তাদের হাতে দেশের ক্ষমতা তুলে দেওয়া হউক। কারন তাহারা নির্ভিক, তাহারা কাউকে পরোয়া করে না, তাদের ধারে কাছে কেউ যেতে সাহস করেনা। তাদের ইচ্ছামতো সবকিছু করতে পারে। আমাদের সরকারের তো এত সাহস নেই যে একজন শিখকাটা খুনিকে গ্রেপ্তার করবে। তাহলে কেন শুধু শুধু ক্ষমতার হাল ধরে বসে থাকবে। আমাদের পুলিশ বাহিনীরাও কি ব্যর্থ তাঁরা কি সত্যিই কিছু জানে না। না এটা বিশ্বাস করার মতো কথা নয়। আমাদের পুলিশ বাহিনীরা এতোই দুর্বল নয় যে তাঁহার দেশের ভিতরে একজন শিখকাটা খুনিকে খুঁজে বের করতে পারবে না। তাহলে তাঁরা পারছে না কেন? তার উত্তর একটাই পুলিশ বাহিনীকে রাজনৈতিক প্রভাবমুক্ত করতে হবে। আমাকে গ্রেপ্তার করলে তোর চাকরী যাবে। তোকে না খেয়ে পথে পথে ভিক্ষা করতে হবে। এমন হুমকি থেকে তাদেরকে মুক্ত করে দিতে হবে। এই পুলিশ বাহিনীকে একবার রাজনৈতিক প্রভাব মুক্ত করে দিয়ে দেখুন তাহারা কি না করতে পারে?