ক্যাটেগরিঃ ফটো

ছবিটি ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়ীয়া উপজেলার কদমতলা নামক জায়গা থেকে তোলা।


১৯ টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. প্রথম আলো বলেছেনঃ

    দরবারী সাব ভালো থাকেন,
    সব কিছুর মধ্যে এত গন্ধ খুজেন ক্যান, সামনে ইলেকশন নেতা কর্মীদের কে একটু চাঙ্গা করতে এগুলো করা জরুরী, আর মুক্তিযুদ্ধের নামে দেশে কত কিই না করা হচ্ছে যা সহজে পাবলিক গিলছে আপনার সমস্যা কিসে? ও আপনার নিজ এলাকা হচ্ছে আর আপনি ভাগ বসাইতে পারতেছেন না এই জন্য? জুয়া-হাউজি-যাত্রা-উলঙ্গ নৃত্য-ওয়ানটেন তো প্রতিদিন হচ্ছে বিভিন্ন হোটেলে, বারে, ক্লাবে, উন্মুক্ত স্টেডিয়ামে মন্ত্রি,আমলা,অসম্প্রদায়িক,সংস্কৃতমনাদের মনরঞ্জনের জন্য সেটা নিয়ে এটার মত মাথা ব্যাথা কি হয় আপনার? নাকি শহুরে আপনি গ্রামের মানুষের(আপনাদের স্ট্যাটাস হ্যাকড হয়ে যাচ্ছে) আস্পদ্দা মেনে নিতে পারছেন না।
    অরা তো ইসলামী কাম করে পয়সা নষ্ট করতেছে না, করতেছে সংস্কৃতচর্চা যা মুক্তমনা ও অসম্প্রদায়িক হতে খুবই কার্যকারী ও ফলদায়ক।

    • মোত্তালিব দরবারী বলেছেনঃ

      ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য।
      ক্ষুদ্র মানুষ হিসেবে হয় তো আপনার কথা বোঝার সাধ্য আমার নাই। তারপরও বলছি-মুক্তিযুদ্ধ এবং মুক্তুযোদ্ধাদের নামে অনেক কিছুই হয় যে গুলোর সাথে মুক্তিযোদ্ধাদের কোন সম্পর্ক থাকে না, এটাও ঐ রকম একটি ধান্ধাবাজী। এর কোন প্রতিবাদ হয়না বলেই ওরা আরও সাহসী হয়ে উঠছে। আমার ভাগের কথা বলছেন সেটা আমার প্রোফাইল পড়লেই বুঝতে পারবেন।

      অরা তো ইসলামী কাম করে পয়সা নষ্ট করতেছে না, করতেছে সংস্কৃতচর্চা যা মুক্তমনা ও অসম্প্রদায়িক হতে খুবই কার্যকারী ও ফলদায়ক।

      এ অংশটুকু বুঝিতে পারিলাম না।

      ২.১
  2. জিনিয়া বলেছেনঃ

    আমি সম্মানিত ব্লগার রাজ্জাক ভাইকে অনুরোধ করছি সংশ্লিষ্ট পুলিশ অফিসে জানিয়ে এই নোংরামি বন্ধ করার ব্যবস্থা নেয়ার জন্য..দরবারী ভাইকে ধন্যবাদ।

  3. আইরিন সুলতানা বলেছেনঃ

    আরো কিছু তথ্য খোলাসা করার অনুরোধ করছি।

    ফান্ড সংগ্রহকারী উদ্যোক্তারা কারা? সরকারি? বেসরকারি? দলীয়?

    মুক্তিযোদ্ধা বলতে অত্র এলাকার মুক্তিযোদ্ধা? নাকি আশোপাশের আরো অনেক এলাকা মিলে?

    এলাকার/ স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা/মুক্তিযোদ্ধাদের কেউ কি মূল উদ্যোক্তা কমিটিতে ছিলেন? বা তাদের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছিল? অথবা ফান্ড সংগ্রহ বিষয়ক অনুমতি নেয়া হয়েছিল?

    ফান্ড সংগ্রহ করে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য কী করা হবে এমন কোন ঘোষণাপত্র আছে?

    যদি হাউজি-জুয়া এসব প্রকাশ্যে ওই স্থানে হয়ে থাকে, তবে এলাকাবাসী এ নিয়ে কোন নালিশ উত্থাপন করেছে কি?

  4. কাজি বলেছেনঃ

    এ দেশে কিছু লোক আছে যারা তাবিজ তুমার দিয়ে পিরগিরি করে ধর্ম নিয়ে ব্যাবসা ও রাজনীতি করে তেমনি আর এক শ্রেণীর লোক আছে যারা মুক্তিযুদ্য ও মুক্তিযোধ্যাদের ব্যাবসা ও রাজনীতি করে।

    “সত্তি সিলুকাস কী বিচিত্র এই দেশ”

  5. মোত্তালিব দরবারী বলেছেনঃ

    এলাকবাসীর প্রতিবাদ, সাংবাদিকদের কঠোর অবস্থানের কারণে শেষ পর্যন্ত বন্ধ হয়ে গেছে মুক্তিযোদ্ধাদের নাম ভাঙ্গিয়ে আওয়ামীভণ্ডদের ব্যাবসা।
    এ ঘটনায় আবরও প্রমাণ হলো অপরাধীরা আসলেই দূর্বল।

    ১১

কিছু বলতে চান? লিখুন তবে ...