ক্যাটেগরিঃ কৃষি

 

কথা হচ্ছিল এক আত্মীয়ের সাথে। এক সময়ে সরকারি চাকুরে ছিলেন তিনি, এখন অবসরে। ব্যক্তিজীবনে সফল মানুষ বটে ! তাঁর সন্তানাদি সবাই দেশের বাইরে প্রতিষ্ঠিত। স্ত্রীসহ থাকেন মফস্বল শহরেই। চাকরি থেকে অবসরের পর এক কৃষি খামার গড়ে তুলেছেন। কৃষিতে সবজিসহ অন্যান্য ফসল আবাদ করে ভালোই লাভবান হয়েছেন। তাঁর খামারে কাজ করে অনেক শ্রমিকের রুজি-রোজগারও হচ্ছিল বটে।
বললাম, ‘‘ভাইজান, এখন আপনার কৃষি কেমন চলছে?’’
নিরাশ কণ্ঠে বললেন, ‘‘কৃষির কথা আর বলবেন না! চলছিল তো ভালোই, এখন এই কৃষিকাজ গুটিয়ে ফেলেছি অনেকটাই।’’
‘‘কারণ কী?’’- বললাম আমি।

তিনি কারণ হিসেবে যা বললেন নিরাশ হবারই কথা! বললেন, ‘‘ভাই, এখন আর আগের মতো কৃষি-শ্রমিক পাওয়া যায় না; পাওয়া গেলেও শ্রমের বাজার অনেক চড়া! এখন আর সবজিসহ সেইসব ফসলে আবাদ করছি না। তাই কৃষিকাজ ছেড়ে ওই কৃষি জমিতে বাগান করেছি, ফলের বাগান করেছি। বাগান থেকে বাৎসরিক ভিত্তিতে যা আয় হয় তাও কৃষির অন্যান্য ফসল আবাদের চেয়ে কম নয়- বলা যায়।
বাগান দেখাশোনা করি নিজেই আর বছর অন্তে বাগানের ফল আসার আগেই তা বিক্রি করি। খরিদদারেরও অভাব হয় না। আর যা-ই হোক সময়টা মন্দ কাটছে না !’’

আলাপে আরও জানলাম, তাঁর খামারে বেশ কিছু শ্রমিক নিয়মিত কাজ করতো। সেই শ্রমিকেরা এখন আর কৃষিকাজ করে না। কৃষিকাজে শ্রম দিয়ে যা আয় হয় অন্য কাজে তার চেয়ে ঢেড় বেশি আয়-রোজগার হয় বলে একে একে সেইসব শ্রমিক তাঁর খামার থেকে চলে গেছেন।

যাক সেসব কথা। আমার ওই আত্মীয়ের একটা কথার সূত্রে আমার এই লেখার উদ্ভব। আলাপের এক পর্যায়ে তিনি বললেন, ‘‘ভাই, শিক্ষিত বেকারের অভাব নেই এদেশে। কিন্তু কাজের লোকের বড়ই অভাব!!’’
বিষয়টি আরেকটু খোলাসা করে আবার বললেন, ‘‘ধরুন, আপনি আজ একটা খবরের কাগজে বিজ্ঞাপন দিলেন এমন ▬ কোনো এক প্রাইভেট ফার্মে কিংবা কোনো এক অফিসে মাত্র দুইজন শিক্ষিত (ন্যূনতম স্নাতক), স্মার্ট, সুদর্শন ও দেশেরে যে-কোনো স্থানে কাজ করতে আগ্রহী যুবকের আবশ্যক। উক্ত কাজের জন্য মাসিক বেতন দেওয়া হবে ৮,০০০/- টাকা। তাহলে দেখবেন পরদিন থেকে শত শত এমনকি হাজারেরও অধিক যোগ্য ও যথাশিক্ষিত যুবকের আবেদন পেতেই থাকবেন। আর ওই কাজটি পেতে কমপক্ষে শ’খানেক তদবীর তো হবেই! এটা আমার বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকেই বলছি।

আর যদি আপনার বাসা-বাড়ির কাজের জন্য একই বেতনে দুইজন ‘বুয়া’ আবশ্যক▬ মর্মে বিজ্ঞাপন দেন। সেক্ষেত্রে কেমন সাড়া পাবেন??
ভেবে-চিন্তে বলুন তো!!’’

আমি কিছু না বলেই মুচকি হেসে বিদায় নিয়ে রওয়ানা হলাম বাসার উদ্দেশে… …