ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

 

হোম ইকোনমিক্স কলেজের ছাত্রী তথা জাতির ভবিষ্যৎ মাতৃদেবীগণ (অল্প সংখ্যক হয়ত বর্তমানেও) জানিয়া অত্যন্ত প্রীত হইলাম একটি দাবি সামনে রাখিয়া আপনারা জোরদার আন্দোলনে নামিয়াছেন। উহাতে আমার কোন সমস্যা বা আপত্তি নাই বরং সমর্থন আছে। সমস্যা অন্যত্র; দাবি আদায়ের যে পথ আপনারা অবলম্বন করিতেছেন অর্থাৎ সড়ক দখল তাহাতে আমি জাতির সামনে ঘোর সংকট দেখিতে পাইতেছি।

33_Home+Econimoics+College_130317_0013

সড়ক অবরোধে লক্ষ মানুষের দুর্ভোগ আপনাদের মাতৃ হৃদয়ে করুণা সঞ্চার করেনা- তাহাও না হয় মানিয়া লইলাম। হাজার হইলেও আন্দোলন বলিয়া কথা! আমার ভাবনা অন্যত্র। ভবিষ্যৎ এ সন্তানের জননী হিসেবে আপনার সন্তানকে আপনি কি শিখাইবেন? বুকে হাত দিয়া বলুন তো আপনার সন্তান কে আপনি সড়ক দখল করিতে উৎসাহিত করিবেন? উত্তর যদি হ্যাঁ হয়, তবে এই জাতির ভবিষ্যৎ নিয়া আমার শঙ্কা কি অমূলক?

প্রশ্ন করিতেই পারেন তাই বলিয়া দাবির কি হইবে? আন্দোলন করিব না? আর কোন পথ কি নাই? যদি সত্যি জানিতে চান তাহলে বলি। আপনারা নিশ্চিত ভাবেই মোহন দাস করম চাঁদ গান্ধী নামটির সাথে পরিচিত। ভদ্রলোক কেবল অনশন করিয়া ব্রিটিশ সিংহর কি দশা করিয়াছিল জানেন নিশ্চয়? হবু মাতৃ দেবীগণ আপনারা কেবল ১০০ জন একযোগে অপরাজেয় বাংলার সামনে কিংবা নিজের ক্যাম্পাসে অনশনে বসিতেন, কল্পনা করুন তো এই অবরোধের চাইতে ভাল ফল হইত কিনা? লক্ষ লোকের দুর্ভোগের কারণ না হইয়া বরং সহানুভুতির ঢেউ উঠিত। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় তো দূর, দেশের সর্বোচ্চ পর্যায়ও নড়িয়া-চড়িয়া বসিতে বাধ্য হইত বলিয়া বোধ করি।

যাক কথা না বাড়াই। যেখানে বিকল্প আছে সেখানে নিজের অনাগত সন্তানের জন্য এ ধরনের দৃষ্টান্ত স্থাপন কি ঠিক হইবে? ভাবিয়া দেখিবেন কি?