ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

 

দীর্ঘদিন অনুসন্ধানের পরও আমি এই শব্দটির অর্থোদ্ধার করিতে ব্যর্থ হইয়াছি। মোটামুটি চার বা পন্ঞ্চোধিক অভিধানের(ইং>বাং) উপর চিরুনী অভিযান চালিয়েও সন্তোষজনক কোনো উত্তর মেলেনি। হ্যা মিলেছে,কিন্তু আক্ষরিক নয় ঘুরিয়ে পেঁচিয়ে প্রতিশব্দ আকারে। থাকিতে নিজের হস্ত(মস্তিষ্ক) হইয়াছি অনেক মেধাবীর দারস্ত। তাই এখন মস্তিষ্কের সদব্যবহার করিয়া হস্তের উপযুক্ত মৈথুনপূর্বক(মুঠোফোনে) স্মার্টনেসের গুষ্টি উদ্ধারে নামিলাম।
সনাতন বিজ্ঞানীদের মতে:

“প্রমান তাপমাত্রা ও চাপে যদি কোনো বস্তু/প্রানী নিজের জ্ঞান ও ব্যক্তিত্বকে কাজে লাগিয়ে যেকোনো পরিবেশে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে পারে,তবে সেই বস্তু/প্রানীকে স্মার্ট বলে”।

এক্ষেত্রে জাত,কুল,পরিচ্ছদ উপেক্ষিত থাকে।

“Smartness is a combination of Knowledge and Personality”

কিন্তু কালের পরিক্রমায় সংজ্ঞার কিছু পরিবর্তন এসেছে। আধুনিক সমাজবিজ্ঞানীদের মতে নিম্নোক্ত যোগ্যতা সমূহের সর্বাধিক মিলসম্পন্ন ব্যক্তিই স্মার্টনেসের দৌড়-এ এগিয়ে।
অত্যাবশ্যকীয় যোগ্যতাসমূহ:

»আপনার অবশ্যই বাংলার ফোঁকড়ে ইংরেজি শব্দের অনুপযুক্ত অনুপ্রবেশ ঘটানোর অভ্যাস থাকতে হবে।

»বাংলাকে ইংরেজীয় কৌশলে উচ্চারণের প্রচেষ্টা থাকা আবশ্যক। এক্ষেত্রে মূল শব্দের বিকৃতি ঘটলেও সমস্যা নাই।

»দেশীয় খাবারের প্রতি এলার্জি থাকতে হবে। তবে মিডিয়ার কোনো সাক্ষাতকারে অবশ্যই শুটকি ভর্তাকে তালিকার শীর্ষে রাখতে হবে।

»বাড়িতে পান্তা খাইলেও ফার্স্ট ডেটিং-এ চাইনিজের সাথে কোনো আপোষ চলবেনা। (আফাদের ক্ষেত্রে)

»চেহারা পেত্নীসদৃশ হইলেও ফেবুতে নীল পরী,সাদা পাখি,গোলাপের পাপড়ি,অপ্সরী,প্রভৃতি নিজের নাম হিসেবে চালিয়ে দিন। কারও আপত্তি আসলে তাকে ব্লক মারুন।(আফা দের ক্ষেত্রে)

»»আপনার দৈনন্দিন কার্যকলাপ(activity),অনুভুতি(Feelings), ইত্যাদি কারো জানার ইচ্ছা না থাকলেও নিজ দায়িত্বে ফেবুতে জানিয়ে দিন। যেমন:প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিয়ে বর্তমান অনুভূতি,এটা সম্পাদনে কতো মিনিট লেগেছে,জিনিসটা দেখতে কিউট ছিল কিনা, পারলে একটা সেলফি আপ দিতে পারেন। (তবে সাবধানে…!!!)

»নিজের একক ছবিতে, স্ট্যাটাসে শত শত নির্দোষ,নিরপরাধ,অনুপস্থিত ব্যক্তিদের ট্যাগিত করে অনাকাঙ্খিত নটির বন্যায়(notification) তাঁদের ভাসিয়ে দিতে হবে। যেমনটা আমি করেছি।

»»সর্ব বিষয়ে জ্ঞান থাকা জরুরী নয়। তবে বন্ধুমহল/সহকর্মীদের আড্ডায় কোনো অজানা বিষয়ে ভুল/মিথ্যা তথ্য উপস্থাপনপূর্বক নিজের পান্ডিত্য ফুটিয়ে তুলতে কার্পন্য করা যাবেনা।

»»পরিধানকৃত পোশাকের যেকোনো ধরনের ত্রুটি,ছেঁড়া,ফোঁটো,শর্ট, ইত্যাদি আত্মবিশ্বাশের সাথে স্টাইল বলে চালিয়ে দিন। যদিও বিশেষ অঙ্গগুলো দৃশ্যমান।

»» প্রচুর মুভি দেখার অভ্যাস থাকতে হবে। তবে যেই দেশীয় মুভি সচরাচর আপনার আশপাশের মানুষ দেখেনা এবং যে ভাষা আপনার দাদাও জানতেননা। এবং আড্ডায় সেগুলোর কিয়দংশ তুলে ধরুন যাতে বাকিরা নির্বাক শ্রোতা হয়ে ঢেলা ঢেলা চোখে চাহিয়া থাকিয়া আপনার পান্ডিত্য উপলব্ধি করতে পারে।

»»ভিক্ষুক ভিক্ষা চাহিবামাত্র ঠোটে এক চিলতে হাসি মাখিয়ে আপনার ভাংতি জটিলতার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। যদিও আপনার ওয়ালেটে গুটিকয়েক ২টাকার নোট শোভা পাচ্ছে।

»»স্মার্টফোন ব্যবহার করা আবশ্যক নয়। তবে ভাবটা এমন থাকতে হবে যে ওগুলা এখন আর আপনার ভালোলাগেনা/ব্যবহারে ক্লান্ত/আপনার iPhone টা ছোটো ভাই চালাচ্ছে। ভুলেও প্রকাশ করা যাবেনা আপনার ফোনের কীপ্যাড গুঁতিয়ে একটা স্ট্যাটাস লিখতে আমার মতো ২ ঘন্টা লাগে।

বি.দ্র.: আমার স্ট্যাটাসের প্রতিটি বাক্যই কাল্পনিক ও মনগড়া। লেখাটি নিছক আনন্দ দানের প্রয়াসমাত্র। কাজেই কাকতালীয় বা বকতালীয়ভাবে যদি কোনো মৃত,জীবিত কিংবা ভবিষ্যতে জন্মাবে এমন কারোর সাথে মিলে যায় তবে আমিতো নই-ই আমার চৌদ্দগুষ্টির কেউ দায়ী নয়।

 

¤¤ ধন্যবাদ