ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

বৃষ্টির দিনে বাসায় আটক আমি অনেকটা বাধ্য হয়েই বাংলা ছবি দেখছিলাম…..বীজগণিত জাতীয় মুভি(সূত্র মেনে চলে), ক্রাইসিস-ক্লাইমেক্স-সেক্স-ভায়োলেন্স…..সবকিছু পর্যায়ক্রমে। ছবিতে নায়িকা মরণাপন্ন, বাঁচার কোন আশা নেই কিন্তু নায়ক তাকে মরতে দেবে না!!! তাই গেয়ে উঠলো প্রেমের স্মৃতিভরা গান আর গান শুনে নায়িকার থেমে যাওয়া স্পন্দন ড্রামের মতো ধুক ধুক করে উঠলো! অবাক ডাক্তারেরা অবাক আমিও….

আমি তরুন সমাজকে আহবান জানাই, আপনারা প্রেম করুন…ভালোবাসার মানুষকে নিয়ে প্রান খুলে গান করুন(নর্তন কুর্দন সহ)। কে বলতে পারে বর্তমান যুগের সর্বাধুনিক চিকিৎসার ব্যর্থতার বিপরিতে এই গানটি হয়তো আপনার এবং তার জীবন বাঁচাতে পারে!!!

আর সরকারকে বলবো, আপনারা স্বাস্থ্যখাতের আজাইরা বাজেট কমিয়ে, তরুন-তরুণীদের প্রেম ও নাচা গানার জন্য পর্যাপ্ত ফাঁকা জায়গা(পার্ক) তৈরি করুন!!! তবে আমি শংকিত, যে ভাবে প্রতিভা অন্বেষনে শুরু হইছে, এক সময় হয়তো আমরা শুনবো “বাদাম ছিলা গান”(পার্কে বাদাম ছিলতে ছিলতে প্রেমিক প্রেমিকাকে যে গান শোনায়) কিম্বা “ঝোপঝাড়ের তারকারা”(বোটানিক্যাল গার্ডেন…) নামক কোন প্রতিযোগিতা।

তবে প্রেম হোক আর নাই হোক, সে প্রেমে গান থাকুক আর নাই থাকুক, ছবির গাঁজাখোরি গল্পের মতো প্রেমিকের গানে প্রেমিকা জাগুক আর নাইবা জাগুক। আমরা ইট পাথর আর কংক্রিটের ভিড়ে একটু ফাঁকা জায়গা চাই….প্রান খুলে শ্বাস নিতে চাই…জানি তাতে হৃদয় জাগবে….যে হৃদয়ে আছে প্রেম…আছে সুর।


১টি মন্তব্য করা হয়েছে

  1. তাজুল ইসলাম বলেছেনঃ

    আজি এই্ বৃষ্টি ভেজা দিনে
    মন দিয়ে যেও সখি,
    ভালবাসার অতন্ত লহরে
    বৃষ্টি-স্নাত প্রেমও দিও বইকি?

    একটি দেশের গণমাধ্যমগুলোই পাল্টে ফেলতে পারে সারা দেশ তথা সমগ্র জাতিস্বত্তাকে। কিন্তু গণমাধ্যমগুলোর খেয়ে তো আর কাজ নাই তারা বিনা বিজ্ঞাপনে এসব করবে? ধন্যবাদ সুন্দর পোষ্টের জন্য।

কিছু বলতে চান? লিখুন তবে ...