প্রেক্ষিত মে দিবস-২০১৭: প্রচারমূলক শ্রমিক আন্দোলন এবং প্রকৃত বাস্তবতা

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ বছরের মে দিবসের র‌্যালি। ছবিটি ইন্টারনেট থেকে পাওয়া। প্রেস ক্লাবের সামনে জড়ো হওয়ার জন্য একটি র‌্যালি বাংলাবাজার থেকেও গিয়েছে। তারাই নিচের শিশুটিকে “মহান মে দিবস” খচিত তাজটি পরিয়ে দিয়েছে। কিন্তু শিশুটি এই দিবস সম্পর্কে এক বিন্দুও জানে না, অধিকার তো অনেক পরের কথা। উনি কারো বেতনভুক্ত নয়, তাই কাজ না… Read more »

ক্যাটাগরীঃ মানবাধিকার

মাদকের নেশা বন্ধ করলে এ কাজে শ্রমিক মিলবে তো?

    একটু দূরেই আরেকটি ম্যানহোলের পাশে মনে হল এরা একটি পরিবার। ছবি তুলতে গেলে মুহূর্তে যে যার পজিশন নিতে শুরু করল। বোঝা গেল- জীবন ক্ষুধা কতটা জমা রয়েছে তাদের!   জীবিকা নির্বাহের জন্য কোনো কাজ না পেলে আপনি কি এই কাজটি করতে প্রস্তুত আছেন? ব্যক্তিগতভাবে আমি রাজি নই। ওরা কি কাজটি আসলে বাঁচার জন্য… Read more »

প্রহসন!

ওর নাম রাসেল। ওর একজন মালিক আছে বটে, তবে কার্যত সেও একজন শ্রমিক। মে দিবস সম্পর্কে ও কিছু জানে না, ‘মহান মে দিবস’ শিরোনামে মাথায় যে মুকুটটি শোভা পাচ্ছে ওটি কাগজের একটি তাজ ব্যতীত আর কোনো মানে নেই ওর কাছে। শুধু নামটা কোনোমতে সই করতে পারে ও। পড়তে পারলো না লেখা একটি শব্দও। কেউ কিছু… Read more »

slide

প্রহসন

পথচারীদের স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে ফেলে মশা নিধন কেন?

মশা মারার জন্য যে ওষুধটি ছিটানো হয় সেটি বিষ। তাহলে নিশ্চয়ই এটি মানুষের জন্যও ক্ষতিকর। যে স্প্রেম্যান ওষুধ ছিটাচ্ছে তারও কার্যত কোনো ট্রেনিং আছে বলে মনে হলো না, কারণ, তার নিজের মুখে কোনো মাস্ক নেই। শরীরও অনাবৃত। পথচারীদের দাবি, মশা মারার ওষুধ ছিটানো উচিৎ অফ-টাইমে। (ভিডিওটি পুরনো ঢাকার প্যারিদাস রোড থেকে গত সপ্তাহে করা।) খুব… Read more »

রাত ১২টা পর্যন্ত কাজ করে বাঁধাই এবং প্রেস কারখানার শিশু শ্রমিকরা!

পুরো প্রেস এবং বাঁধাই শিল্পের অর্ধেক শ্রমিক শিশু! অর্থাৎ শিশুশ্রমের উপর টিকে আছে সেক্টরটি। সুফল ভোগ করছি আমরা সবাই। এর চেয়েও ভয়ঙ্কর দিক হচ্ছে- এই সব শিশুরা কাজ করতে বাধ্য হচ্ছে সকাল ৯টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত। নিচের ছবিগুলোই বলে দেয় কি অমানুষিক পরিশ্রম তাদের করতে হয়। বেতন বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই থাকা খাওয়া বাদে ৫০০ টাকা… Read more »

যাত্রীসেবা বলে কিছু কি দরকার নেই?

কোন লঞ্চের সিট ব্যবস্থাপনা একরম টুল বেঞ্চে হতে পারে? অথচ এভাবেই যাত্রী পরিবহন করছে মাওয়া ঘাটের অনেক লঞ্চ।

slide

ক্যাটাগরীঃ ফটো

ছিয়াশি বছর বয়সেও তাকে জীবিকা নির্বাহ করতে হয়!

বাংলাবাজারের ঐ পথ দিয়ে যেতে যেতে রোজ ওনাকে দেখি। ভাবলাম, আজকে ওনার সথে কথা বলি। ওনার নাম হাসেম শেখ। বাড়ি বিক্রমপুরে। ছিচল্লিশ বছর ধরে এই জায়গাটিতে তিনি কলা বিক্রী করেন! জানি না ওনার মত দেশে ঠিক কত মানুষ আছে যারা রাষ্ট্রকে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন আমৃত্যু নিভৃতে কোনো প্রতিদান ছাড়া …।

ক্যাটাগরীঃ ভিডিও

নিছক ভ্রমণকারী কেন হবেন?

আপনি নিছক একজন ভ্রমণকারী কেন হবেন? আমি কেন তা হব? সমাজ সভ্যতায় আপনার আমার কোনো দায় নেই, থাকা উচিৎ না? ভ্রমণে প্রতি পদেপদে খরচ হয়, টাকা বাঁচিয়ে চলতে হয়, এতে দায় বাড়ে বৈ কমে না একটুও। এর মানে এই নয় যে ভ্রমণের গুরুত্ব আমি অস্বীকার করছি। তবে ‘গুরুত্ব’ শব্দটির ভীষণ আপেক্ষিকতা আছে, সেটিও মাথায় রাখতে হবে।… Read more »

তাহলে ‘অপরাজেয় বাংলা’ ভাস্কর্যও কি ঢেকে রাখতে হবে?

পত্রিকার খবর অনুযায়ী শেষ পর্যন্ত সরকার প্রধান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে স্থাপিত ন্যায় বিচারের প্রতীক জাস্টিসিয়া মূর্তিটির ব্যাপারে একটি সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন। এখন থেকে নামাজের সময় মূর্তি, প্রতিকৃতি বা ভাস্কর্যটি ঢেকে রাখা হবে বলা হচ্ছে। সিদ্ধান্তটি কতটা হাস্যকর হয়েছে তা কৌশলগত কারণে বলা মুশকিল তবে এটি… Read more »

গ্রাম বাংলার প্রায় হারিয়ে যাওয়া দৃশ্য

এক সময় গ্রাম বাংলার যেকোনো মেলায় এ দৃশ্যটি দেখা যেত। এখন আর সহজে চোখে পড়ে না। ছবিটি নবীনগরের নলাম গ্রামের চড়ক মেলা থেকে পহেলা বৈশাখে তোলা

slide

ক্যাটাগরীঃ ফটো