ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

 

বিজয়ের মাস চলছে। ২৬ মার্চ, ১৯৭১ থেকে ১৬ ডিসেম্বর,১৯৭১ পর্যন্ত মুক্তিযুদ্ধে আমরা বিজয়ী হয়েছি, পেয়েছি স্বাধীনতা। মুক্তিযুদ্ধে যে একজন ইহুদির অবদান ছিল এটা আমরা হয়ত মনে রাখি নি। ভারত ৩ ডিসেম্বর, ১৯৭১ এ মুক্তিযুদ্ধে যোগদান করে। বেশির ভাগ বিজয়ই চলে আসে ভারত অংশগ্রহণ করার পরে। ভারতের যোগদানের মাত্র তেরো দিনের মাথায় বিজয় অর্জিত হয়। ”মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব প্রদানকারীরা ছিলেন জেনারেল মুহম্মদ আতাউল গণি ওসমানী, মেজর জেনারেল কে এম সাইফুল্লাহ, মেজর জেনারেল জিয়াউর রহমান, মেজর জেনারেল খালেদ মোশাররফ, জেনারেল জগজিত সিং অরোরা,ফিল্ড মার্শাল শ্যাম মানেকশ’ , লেফটেন্যান্ট জেনারেল সাগত সিং , মেজর জেনারেল জে.এফ.আর জ্যাকব” [১]। আর এই মেজর জেনারেল জে.এফ.আর জ্যাকব [২,৩] কে ছিলেন তা হয়ত আমরা অনেকেই জানি না।

জ্যাকব একজন ভারতীয় ইহুদি ও উনার জন্ম কলকাতায়। উনি বাগদাদী (ইরাক) ইহুদি বংশদ্ভুত।[২]

মেজর জেনারেল জে.এফ.আর জ্যাকব মুক্তিযুদ্ধে তার ভূমিকার জন্য শ্লাঘা (awarded a commendation of merit) ভূষিত হন [২]।

পাকিস্থানের আত্মসমর্পনের ব্যাপারে নিয়াজি তর্জন-গর্জন করেছে, কিন্তু জ্যাকব ছিল দৃঢ়। জ্যাকব নিয়াজিকে বলেন:

“জেনারেল, আমি আপনাকে আশ্বাস দিচ্ছি, যদি আপনি পাবলিকের মধ্যে আত্মসমর্পণ করেন ও শর্ত গুলো গ্রহণ করেন, আমরা আপনাকে এবং আপনার সৈন্যদের দেখব। ভারত সরকার কথা দিয়েছে আপনার ও আপনার সিভিলিয়ানদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে। আপনি যদি আত্মসমর্পণ না করেন, আমরা কোনো দায়িত্ব নিব না। আমি আপনাকে ৩০ মিনিট সময় দিব। আপনি যদি মেনে না নেন, আমার কোন উপায় নাই কিন্তু যুদ্ধবিগ্রহ এর পুনরারম্ভ অর্ডার দিতে চাই।” [৪]

পরে জ্যাকব চিন্তায় পরে যান:
”যদি তিনি (নিয়াজি) না করেন , আমি কি করব? আমার হাতে কিছুই নেই। নিয়াজির আছে ২৬,৪০০ সৈন্য আর আমাদের আছে প্রায় ৩,০০০ সৈন্য।” [৫]

পাকিস্তান এর প্রধান বিচারপতি হামিদুর রহমানের যুদ্ধ তদন্ত কমিশনের প্রধানের কাছে ছত্রভঙ্গ হওয়ার কারণ খতিয়ে দেখার জিজ্ঞাসা ছিল , ”কেন জেনারেল নিয়াজী এ ধরনের একটি লজ্জাজনক পাবলিক নিঃশর্ত আত্মসমর্পণ স্বীকার করেছে, যখন তার ঢাকার মধ্যে ২৬,৪০০ সৈন্য ছিল এবং ভারতের মাত্র কয়েক হাজার সৈন্য ছিল”? [৪,৬] জেনারেল নিয়াজী উত্তরে বলেছেন :

আমি জ্যাকব দ্বারা ব্লাকমেইলড হয়ে আত্মসমর্পণ করতে বাধ্য হই [৪,৬]

তারপর জেনারেল জ্যাকব তার বিবৃতিতে বলেন,

পূর্ণ ক্রেডিট মুক্তিযোদ্ধা এবং ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের। তারা জয়ের জন্য আসল কাজ টি করেছেন এবং তাদের বীরত্বর জন্য জাতি স্বাধীনতা লাভ করেছে [৭]

বিজয়ের মাসে আসেন আমরা ধর্ম-বর্ণ-জাতি ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে স্বাধীনতার জন্য যাদের অবদান ছিল তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করি ও শ্রদ্ধা নিবেদন করি।

– বোতল বাবা ০৩.১২.২০১২

তথ্যসূত্র: (০৩.১২.২০১২ তারিখে দেখা )

[১] বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ -উইকি
[২] জে.এফ.আর জ্যাকব – উইকি
[৩] জে.এফ.আর জ্যাকব-ফ্যাক্ট
[৪] ১৯৭১ যুদ্ধ: ‘আমি আপনাকে ৩০ মিনিট সময় দিব’
[৫] লে. জেনারেল জে.এফ.আর জ্যাকব-আমাকে নির্দেশ উপেক্ষা করতে হয়েছিল
[৬] কিভাবে পাকিস্থান আত্মসমর্পণ করে
[৭] তাদের জন্য আমাদের সম্মান
[৮] জ্যাকব ফটো উত্স
[৯] ফটো: ১৯৭১ মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্থানের আত্মসমর্পণ – উইকি