ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

দেশের অনলাইন কাগজগুলোয় প্রকাশ সজিব ওয়াজেদ জয় এর বিশেষ ব্যক্তিগত উদ্যোগে বাংলাদেশের রাজনিতিতে আবার সক্রিয় হচ্ছেন বংগতাজ পুত্র জনাব সোহেলতাজ। নিসন্দেহে এটা শুধু আওয়ামিলীগের জন্যই নয় বরং সমগ্র দেশবাসির জন্যই পরম এক আনন্দের খবর; কারন দেশবাসির প্রতি তাজ পরিবারের ডেডিকেশন কালের কষ্টিপাথরের বিচারে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পুর্ব থেকেই উত্তির্ণ।

 

joy

অনুমান করতে পারি হাসিনাপুত্র জয়কে তাজপুত্র সোহেলতাজকে স্বেচ্ছানির্বাসন থেকে প্রত্যাবর্তন করতে রাজি করাতে যথেষ্ট গলদ্ঘর্ম হতে হয়েছে। আর আশান্বিত হতে পারি জয়ের এই ঐকান্তিক প্রচেষ্টার মধ্য দিয়ে বোধকরি বাংলাদেশের রাজনিতিতে জনাব সজিব ওয়াজেদ জয়ের সক্রিয় অংশগ্রহন শুরু হলো, শুরু হলো আওয়ামিলীগের মধ্যে সংস্কার।

আমরা আরও আশা করতে পারি যে দলীয় সংস্কার জনাব জয় শুরু করেছেন তা অব্যহত থাকবে আর এর মাধ্যমে দলের অভ্যান্তরে স্বীয়স্বার্থ চরিতার্থ করার মানসে ব্যাপৃত মহীরুহ আকারধারণ করা আগাছাগুলো- যেগুলোর কারনেই সোহেলতাজের মত নিবেদিতপ্রাণ আওয়ামী নেতাকে স্বেচ্ছানির্বাসনে যেতে হয়েছিল, সেগুলোকে সর্বাগ্রে মুলোতপাটিত করবেন।

 

কারন, একজন সম্মানিত ব্যাক্তিকে সবাই সম্মান দেবেই এমনটি নাও হতে পারে, তবে তাঁকে আমন্ত্রণ জানিয়ে ডেকে এনে অসম্মানিত করবেন, সেটি এদেশের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের পরিপন্থী বলেই কারো কাছেই গ্রহনযোগ্য নয়।

 

সাধুবাদ জানাই জয়কে এই দুরদর্শি আর সময়োপযোগী পদক্ষেপের জন্য। শুভকামনা জনাব সোহেলতাজকে, রাজনিতিতে তাঁর পরিবারের ত্যগের দৃষ্টান্ত দেশবাসিকে পুনরায় মনে করিয়ে দেবার জন্য।

গৌতম হালদার