ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 

ঢাকা থেকে মোটরসাইকেল করে, বৃষ্টিতে ভিজে, যানজট ঠেলে প্রায় ৪০ কিলোমিটার পথ পারি দিয়ে পৌঁছালাম গাজীপুর, কাশিমপুরের নয়াপাড়া—মালটিফ্যাবসে! মালিক পক্ষের লোকজন জানালো—সাংবাদিক সাবধান!

তখন সন্ধ্যা হতে খানিক বাকি। আমি আর প্রবাল দাঁড়িয়ে আছি— গাজীপুর সদর হাসপাতালের মর্গের সামনে; মর্গটি একতলা, গাছপালা দিয়ে ঘেরা— বেশ নির্জন! তখনো গাজীপুরের মালটিফ্যাবসে বয়লার বিস্ফোরণে নিহত এক জনের লাশ পরে আছে—মর্গে !

Snapseed

বয়লার বিস্ফোরণে নিহতদের সংখ্যা এ পর্যন্ত ১৩ । শ্রমিকদের সাথে কথা বলে জানলাম, আরো কেউ কেউ নিখোঁজ আছে ।

স্পেকট্রাম, তানজীর, রানাপ্লাজা, টাম্পাকো, মালটিফ্যাবস; এ সব যেন— এক একটা মৃত্যু কুপের নাম ! এ পর্যন্ত হাজারো পোষাক শ্রমিক নিহত হয়েছে, পঙ্গুত্ব জীবন মেনে নিয়েছেন—অগণিত শ্রমিক ! অথচ দেশের অর্থনৈতির চাকা সচল রাখতে এসব শ্রমিকরা অগ্রণী ভূমিকা রেখে চলছে-এই জনগোষ্ঠি! তবুও আমাদের রাষ্ট্রযন্ত্র আর মালিক নির্বাক . . .!

লেখক : সাংবাদিক ও আলোকচিত্রী

slide

মালটিফ্যাবসে বয়লার বিস্ফোরণের পর চলছে উদ্ধার অভিযান । ছবি: মনিরুল আলম