ক্যাটেগরিঃ ব্লগালোচনা

 

আমাদের অবচেতন মনের না বলা কথাগুলো নিয়েই আমরা ব্লগে লেখালেখি করি। এই ব্লগ ডট বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে এমন অনেক লেখা আছে যা শুধুমাত্র অর্ন্তজালের এই বৃহৎ পরিমন্ডলের বাইরের অনেক মানুষের কাছে পৌঁছার যোগ্যতা রাখে। আর সবার কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্য বই আকারে প্রকাশের কোন বিকল্প নেই। এককভাবে বই আকারে প্রকাশ করা হয়ত একজন ব্লগারের পক্ষে সম্ভব হয়ে ওঠে না। উপরন্তু যুথবদ্ধভাবে কাজ করার আনন্দটা্ই ভিন্ন। একটা সংকলন প্রকাশ হলে অনলাইনের লেখাগুলো অফ-লাইনে পড়া যায়। যারা ব্লগিং জানে না, তাদেরকে আমাদের সংকলনটা উপহার হিসেবে দেয়া যায়।

আজ হঠাৎ পুরোনো পোস্টগুলো পড়ার সময় পুনরায় লক্ষ্য করলাম, গত দু’বছর কোন নগর নাব্য বের হয়নি। আর এতে করে আমাদের মাঝে ’নগর নাব্য’ নিয়ে এক ধরনের শূন্যতা তৈরি হয়েছে বলে মনে করছি। তাই এই শূন্যতা কাটিয়ে উঠতে আবার অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৬ ‘কে সামনে রেখে নতুন উদ্যোগে ’নগর নাব্য ২০১৬’ প্রকাশ করার প্রস্তাব করছি।

এক্ষেত্রে আমার কিছু পর্যবেক্ষণ আছে, মিশ্র লেখা হলে মেলার দর্শনার্থী পাঠকেরা সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। যেহেতু বই প্রকাশ হবে, তাই এর বিক্রির দিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে। নতুবা প্রকাশক কেন বই প্রকাশ করবে? সুতরাং পাঠক প্রিয়তা আছে, এমন কোন বিষয়বস্তু নিয়ে নগর নাব্য প্রকাশিত হলে, নগর নাব্য’কে পাঠকের হাতে তুলে দেয়া সহজ হবে।  বইমেলাতে বরাবর ভ্রমণ কাহিনী ভিত্তিক বইয়ের চাহিদা থাকে। অন্যদিকে আমাদের ব্লগেও রয়েছে অসাধারণ, রোমাঞ্চকর ভ্রমণ পোস্ট। তাও আবার অনেক পোস্ট সচিত্র।  আগের দুটো সংখ্যার চেয়ে এবারের নগর নাব্য একটু ভিন্ন ভাবে প্রকাশের প্রস্তাব সকলের সামনে রেখে বলতে চাই,   ‘ভ্রমণ’ ভিত্তিক ব্লগ সংকলন হিসেবে ’নগর নাব্য ২০১৬’ নিয়ে আসুন সবাই একসাথে কাজ করি।

 

saifebhuyan_1329584966_1-1ddd

 

ভেবে দেখলাম, ’ভ্রমণ’ পোস্টগুলো এই ব্লগের নাগরিক সাংবাদিকতা ভিত্তিক বৈশিষ্টের সাথেও সামঞ্জস্য রাখে। ভ্রমণের সাথে নাগরিক সাংবাদিকতা জড়িত। নিজের আবেগ প্রকাশ ছাড়াও সাংবাদিকতার নানা দিক যুক্ত থাকে ভ্রমণ বিষয়ক লেখায়, যা পাঠককে সহজে আকৃষ্ট করে। যেমন, ব্লগার নিজস্ব ধারণকৃত ছবি যুক্ত করছে পোস্টে, কোথায়-কীভাবে যেতে হয়, তার বর্ণনা দিচ্ছে, জনবসনতি, খাদ্য, রেস্টুরেন্ট, সংস্কৃতি ইত্যাদি অনেক তথ্য যুক্ত হয়েছে ভ্রমণ বিষয়ক পোস্টগুলোতে। তাহলে, এসব লেখার মাঝ থেকে কিছু এক্সক্লুসিভ ভ্রমণ কাহিনী নিয়ে কেন আরেকটা ’নগর নাব্য’ প্রকাশে আমরা একত্রিত হবো না?

আমি একা অবশ্যই পেরে উঠবো না, তাই পূর্বেকার মত লেখা বাছাই, চূড়ান্ত নির্বাচনে এবং চূড়ান্ত সম্পাদনায় ব্লগের নিয়মিত ব্লগারদের মধ্য থেকে সহ-সম্পাদক হিসেবে ব্লগার জাহেদ-উর-রহমান এবং সম্পাদক হিসেবে মোনেম অপুর নাম প্রস্তাব করছি। আশা করি এ কাজে তারা অরাজি হবেন না। অনুমতি না নিয়ে নাম প্রস্তাব করাতে, ব্লগার বন্ধুদের সমর্থন চাইছি, তাদের রাজি করাতে। আশা করি, এই পোস্টে দু’জন বিজ্ঞ ব্লগারের উপস্থিতি ঘটবে এবং তারা সহযোগিতায় থাকবেন সব সময়।

যেহেতু বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ব্লগে আমরাই লেখালেখি করি তাই এই বই প্রকাশেও থাকতে হবে ব্লগারদের পছন্দের কর্তৃত্ব। বইটি প্রকাশ করতে হলে এখন আমাদের যা করতে হবে- (প্রস্তাবনা)

১.     সকল ব্লগারদের অংশগ্রহণ । আমাদের স্বতঃস্ফুর্ত অংশগ্রহণই এই উদ্যোগকে সফল করতে পারে, কারণ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ব্লগ যেমন আমাদের সবার অংশগ্রহণে মুখরিত, ঠিক তেমনি এই একঝাঁক উদ্যমী ব্লগারদের উদ্যোগেই প্রকাশিত হবে আমাদের লেখা। অতএব আমাদের প্রয়োজনেই আমরা অংশগ্রহণ করবো।

২.      বই প্রকাশের অংশ হিসেবে প্রাথমিক লেখা বাছাইয়ের জন্য যে যার পছন্দের লেখার (ভ্রমণ বিষয়ে) লিংক জমা দিবেন। নিজের লেখা (যে লেখাটি আপনার বিবেচনায় সেরা ) পোস্টের লিংক, অথবা অন্য কারো ব্লগের লেখা (অবশ্যই বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ব্লগে প্রকাশিত), যা আপনার বিবেচনায় প্রকাশযোগ্য, এমন এক বা একাধিক লেখার লিংক শেয়ার করুন এই পোস্টের মন্তব্যের ঘরে। ভ্রমণ ক্যাটেগরি থেকে সহজেই খুঁজে নিতে পারেন বিভিন্ন পোস্ট।

৩.     সবাইকে আগামি ২০ নভেম্বর, ২০১৫ তারিখের মধ্যে লেখা জমা দেওয়ার অনুরোধ করছি। মূলত সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে আমাদের হাতে সময় খুব বেশি নেই।

৪.     সংগৃহীত লেখা থেকে প্রাথমিক বাছাই শেষে সর্বোচ্চ ১৫টা লেখা নিয়ে একটি প্রাথমিক বাছাই করা হবে। এবং চূড়ান্ত বাছাইয়ে সেখান থেকে সম্পাদক সেরা ৫টি লেখা বাছাই করবেন।

৫.  সংগৃহিত লেখা থেকে প্রাথমিক বাছাই শেষ করা যেতে পারে ২৪ নভেম্বর এর মধ্যে। চূড়ান্ত বাছাই শেষ করা যেতে পারে, ২৭ নভেম্বর এর মধ্যে। এরপর পাণ্ডুলিপি সম্পাদনা, ফন্ট কনভার্সন, বানান ইত্যাদিতে হয়ত আরো ৩-৪ দিন লেগে যাবে। এরপরেই পাণ্ডুলিপি প্রকাশের হাতে তুলে দেয়া যেতে পারে।

 

লিংক শেয়ারের সঙ্গে সঙ্গে বইয়ের প্রচ্ছদ সম্পর্কে আপনাদের মতামত দিন। এ ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা থাকলে মডেল প্রেরণ করুন। এমনও হতে পারে কোন ব্লগারের দেওয়া সেরা ছবি থেকেই করা হয়েছে কাঙ্খিত প্রচ্ছদ!

দৃষ্টি আকর্ষণ >> যেকোন ব্লগারই তার পছন্দের পোস্টের লিংক প্রস্তাব করতে পারেন এই পোস্টের মন্তব্য ঘরে। এর উদ্দেশ্য একটু দ্রুত সহযোগীতা প্রত্যাশা ও নিশ্চিত করা।

 

imgrok_63645

আশা করি, সবার স্বতঃস্ফুর্ত অংশগ্রহণে ও সহায়তায় দ্রততম সময়ের মধ্যেই আমরা আমাদের কাঙ্খিত নগর নাব্য সংখ্যা প্রকাশ করতে পারব। সকলে ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন।

আপনার পরামর্শ জানান। একই সাথে  ব্লগের ভ্রমণ ক্যাটেগরি থেকে আপনার নিজের অথবা সহ-ব্লগারের এক বা একাধিক পোস্টের লিংক প্রস্তাব করুন।

 

***

এর আগের নগর নাব্য নিয়ে ব্লগারদের প্রতিক্রিয়া পড়ে দেখতে পারেন –