ক্যাটেগরিঃ প্রকৃতি-পরিবেশ, ফিচার পোস্ট আর্কাইভ

 

অবশেষে চট্টগ্রাম এলাকার ওপর দিয়ে বাংলাদেশ উপকূল অতিক্রম করার পর বৃষ্টি ঝরিয়ে ক্রমশ দুর্বল হয়ে স্থল নিম্নচাপে পরিণত হয়ে ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু আরো উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে বর্তমানে বাংলাদেশের ফেনী, সীতাকুণ্ডু ও খাগড়াছড়ি এবং ভারতের ত্রিপুরা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, ডপলার রাডার ইকো ও আবহাওয়া উপাত্ত বিশ্লেষণ থেকে দেখা গেছে উপকূল অতিক্রমরত ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’ আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে চট্টগ্রামের কাছে এবং বৃষ্টি ঝরিয়ে দুর্বল হয়ে স্থল নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে এবং এটি স্থলভাগের উপর দিয়ে আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে বৃষ্টি ঝরিয়ে ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে যাবে।

ROANU-Impact-Zone-2ed

শনিবার বেলা দেড়টার দিকে চট্টগ্রামের উপর দিয়েই উপকূল অতিক্রম করতে শুরু করে ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু। আঘাত হানার সময় ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের সর্বোচ্চ একটানা গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার, যা দমকা বা ঝড়োহাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল।

শনিবার ভোর রাত থেকে শক্তিশালী হয়ে ওঠা ঘূর্ণিঝড়টি সারাদিন বৃষ্টি ঝরিয়ে বিকালের দিকে দুর্বল হয়ে পড়লেও ইতোমধ্যেই উপকূলকে এলোমেলো করে দিয়েছে ‘রোয়ানু’।

cox

উপকূলে প্রাণহানি ঘটানো ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’র আঘাতে মানুষের সহায় সম্পদের ক্ষয়-ক্ষতির পাশাপপাশি এখন পর্যন্ত ১৯ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে চট্টগ্রামে ৮, কক্সবাজারে ২, পটুয়াখালী ১, ভোলা ৩, নোয়াখালী ৩ ফেনী ১ এবং লক্ষ্মীপুর ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।  ঝড়ো বাতাসে উপড়ে পড়েছে গাছ, বিধ্বস্ত হয়েছে ঘরবাড়ি এবং বিদ্যুৎ ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে অনেক স্থানে। জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হয়েছে বিস্তীর্ণ এলাকা।

Potenga-(5)

ব্যাপক আলোচিত এবারের এই ঘুর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’র নামকরণ রোয়ানু কেন? যতদূর জানা যায়, রোয়ানু শব্দটি মালদ্বীপের। এর অর্থ নারিকেলের ছোবড়ায় তৈরি দড়ি। মালদ্বীপই এ নামটি প্রস্তাব করেছিল।  বর্তমানে সব ঝড়েরই নাম দেয়া হয়। সব দেশই নাম দেয়। তারপর পর্যায়ক্রমে ঝড়গুলোর নাম হয়ে থাকে। সেই সূত্র ধরে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সাগর তীরের আট দেশের আবহাওয়া দপ্তর ও বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থার দায়িত্বপ্রাপ্ত প্যানেলের তালিকা অনুযায়ী এ ঘূর্ণিঝড়ের নাম দেয়া হয়েছে ‘রোয়ানু’। ঘূর্ণিঝড়ের নাম হয় সহজ, যাতে বিজ্ঞানী থেকে সাধারণ মানুষ- সবাই তা সহজে মনে রাখতে পারে।

Bhola-01

ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু আমাদের উপকূল অতিক্রম করলেও এখনো স্বাভাবিক হতে পারেনি সংশ্লিষ্ট এলাকাসহ সারা দেশের অবস্থা। এ অবস্থায় আমাদের প্রিয় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ব্লগের ব্লগাররা কেমন আছেন- আমার মতো সবাই সবার এই খোঁজ খবর নেওয়ার জন্য ব্যাকুল হয়ে আছেন বলেই আমার ধারণা। তাই সবাই মিলে একটা আওয়াজ দিন- কে কোথায় কেমন কিভাবে আছেন? রোয়ানুর অভিজ্ঞতা কেমন হলো? এলাকায় রাস্তা ঠিক হলো তো..? বিদ্যুৎ কি আসেনি এখনো..? দুর্যোগ পরিস্থিতি মোকাবেলা কিভাবে করা যায় তারও একটা আলোচনা হয়ে যেতে পারে চাইলে।

পরিশেষে আবারো ব্লগ ডট বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের সব ব্লগারদের সুস্বাস্থ্য ও মঙ্গল কামনা করছি। ভালো থাকবেন সবাই।