ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা, ব্লগ সংকলন: সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ড

 

১ বছর পূর্ণ হলো সাগর-রুনির হত্যাকান্ড। কিন্তু হত্যাকাণ্ডের কোন রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। সর্বশেষে গত শনিবার সন্দেহভাজন খুনী এনামুলকে (বাড়ির দারোয়ান) গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। এখন এনামুলকে বলা হয় এই হত্যাকাণ্ডের সবচেয়ে সন্দেহভাজন আসামি।

প্রশ্ন হলো এনামুল যদি সন্দেহভাজন আসামি হলে তাকে কেন ছেড়ে দেওয়া হলো গ্রেপ্তার করে? যদিও এক সপ্তাহ আগে থেকেই এনামুলের অবস্থান সনাক্ত করা হয়েছে বলে দাবি করে আসছিলো র‌্যাব। কিন্তু আমার মনে হয় এনামুলকে আরো অনেক আগেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কারণ আজ তাদের হত্যাকাণ্ডের ১ বছর পূর্ন হবে, তাই মানুষের বুঝ দিতে তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।বাড়ির দারোয়ান ও চোররা যদি এই হত্যাকাণ্ডের সাথে জরিত থাকত,তাহলে আরো অনেক আগেই এই হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন হতো। এখানে অনেক বড় কারো হাত আছে। তাই তাদের বাঁচানো চেষ্টা হচ্ছে।

৪০ বছর পর যদি বাংলার মাটিতে রাজাকারের বিচার হয়, তাহলে কোন একদিন অবশ্যই এই হত্যাকাণ্ডের বিচার পাব ও সঠিক রহস্য উদঘাটন হবে। সাথে সাথে ঘটনার মূল নায়কে বাঁচানো ও “এনামুক নামে নতুন জজ মিয়া নাটক” সাজালে তা কোন ভাবেই মেনে নেওয়া হবে না।