ক্যাটেগরিঃ দিবস প্রসঙ্গ

 

লাল সবুজের দেশে ইতিহাস ও ঐতিহ্যের বড় বাহক বাংলাদেশ রেলওয়ে । দেশের যোগাযোগ ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে রেল গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে যাচ্ছে । যোগাযোগ ব্যবস্থায় রেল এখন মানুষের আস্থার প্রতীক। এই আস্থা সহজে অর্জন হয়নি ।

স্বাধীনতা যুদ্ধে রেল অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয় । সেই ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে থাকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাত ধরে । পরবর্তীতে রেল উন্নয়নে বাধা হয়ে দাঁড়ায় বিভিন্ন সময়ের রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত । তবে সকল বাধা পেরিয়ে রেল এখন দৃশ্যমান উন্নয়নের  প্রতীক । ধন্যবাদ বর্তমান উন্নয়ন সরকারকে । বিশেষ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ।

ব্রিটিশ শাসনে শুরু হওয়া দেশের এই রেল বিভাগ উন্নয়নের পূর্নতা পায় বর্তমান সময়ে । বর্তমান সরকারই যোগাযোগ ব্যবস্থায় রেলকে মানুষের জীবনের অংশ হিসেবে দাঁড় করাতে পেরেছে । আশা করছি এই উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে । ইতিহাস ,ঐতিহ্য ও স্বাধীনতার স্মৃতি নিয়ে রেল আপন মহিমায় উজ্জ্বল থাকুক সেই আশা করি ।

আমাদের প্রাণের বাংলাদেশ রেলওয়ে যাত্রা শুরু করেছিলো ১৫ নভেম্বর ১৮৬২ সনে (ভিন্ন নামে) । সেই যাত্রা শুরু ! এরপর বিভিন্ন সময় পার করেছে আর এই সময়ে  আমরা আছি । এখন সাথে আছে রেলবান্ধব সরকার ।

রেল নিয়ে আমাদের স্বপ্নের শেষ নেই । যে স্বপ্নযাত্রা শুরু হয়েছিলো ১৫ নভেম্বর ১৮৬২ । সেই স্বপ্নযাত্রাকে স্মরণীয় রাখতেই আসছে ১৫ নভেম্বর Bangladesh Railway ফেসবুক গ্রুপের আয়োজনে বাংলাদেশের সকল রেলফ্যান রেলপথ দিবস পালন করতে যাচ্ছে (উৎস-গ্রুপের ইভেন্ট) । আশাকরি সাথে থাকবে আমাদের রেলমন্ত্রী মহোদয় ও রেলপথ উন্নয়নের প্রতীক ও দেশের অভিভাবক মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । রেলফ্যানগণ সেই স্বপ্ন দেখা শুরু করেছে অনেক আগে থেকেই । এখন অনুমোদনের অপেক্ষা ।

ইতিহাসে নতুন কিছু যোগ করতেই আমাদের দেশের রেলফ্যানগণ এই ইচ্ছার কথা বলছে।  আশাকরি ১৫ নভেম্বর সবার সাথে থাকতে পারবো। এগিয়ে যাক আমাদের বাংলাদেশ রেলওয়ে। সেবায় হয়ে উঠুক সর্বশ্রেষ্ঠ। প্রথম রেলপথ দিবসটি সাফল্য লাভ করুক।

রেলপথ দিবস চালু হোক। রেলপথ হোক মানুষের স্বস্তির পথ ❤