ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

 

g

শেষ হাসিটা হাসার কথা ছিলো চাঁদপুর ক্রিকেট একাডেমির ক্রীড়াবিদের। কিন্তু ভাগ্য তাদের প্রসন্ন নয় তাই জয়ের খুব নিকটে গিয়েও জয় ছিনিয়ে আনতে সক্ষম হন নি তারা। চাঁদপুরে ক্রীড়া মাস ২০১৬ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ক্রিকেটের আয়োজন করা হয়। এর পৃষ্ঠপোষকতায় ছিলেন হাজিগঞ্জের পৌর মেয়র।

গতকাল ১২-১২-১৬ তারিখে বঙ্গবন্ধু ক্রিকেটের ফাইনালে চাঁদপুর স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় পলাশ সোমের দল প্রফেসর পাড়া এবং চাঁদপুর ক্রিকেট একাডেমির খেলোয়াররা।

rifat
ম্যাচের প্রথমে টসে জিতে ব্যাট করতে নামে প্রফেসর পাড়া ক্রীড়া চক্র। এদিন প্রফেসার পাড়ার পক্ষে তেমন কেউ জ্বলে উঠতে না পারলেও হিরা ও ইউনূসের দায়িত্বশীল ব্যাটিং কে পুঁজি করে মাত্র ১০৩ রান সংগ্রহ করে প্রাইভেট পাড়া। হিরা ২৬, ইউনূস ১৭ রান করে কোন মতে দলকে সম্মানজনক স্কোরে পরিণত করেন।

কিন্তু এতো ছোট টার্গেটকে তাড়া করতে নেমে টপ অর্ডাররা ভালই করছিলেন একাডেমির পক্ষে। কিন্তু মিডল অর্ডার লো অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা কেমন যেনো উদাসীন হয়ে পড়েন। লক্ষ্য তাড়া করতে ক্রিকেট একাডেমি লক্ষভ্রষ্ট হয়।

জয়ের জন্য ১০৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সবকটি উইকেট হারিয়ে মাত্র ৯৮ রানে থেমে যায় তাদের জয়ের রথ। আলাউদ্দিন সর্বচ্চ ১৭ রান করেন। মাত্র ৫ রানে হেরে শিরোপার খুব নিকটে গিয়েও ট্রফি ছুঁয়ে দেখা হলো না মেহেদী, ইউনূসদের।

এ ব্যাপারে প্রফেসর পাড়ার উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান পলাশ সোম বলেন, আমরা চেষ্টা করে গেছি দলকে ভাল কিছু উপহার দেয়ার জন্য। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ভাল কিছু উপহার দিতে পেরেছি। ভবিষ্যতে আরো ভাল কিছু উপহার দেবো দলকে এটাই প্রত্যাশা।