ক্যাটেগরিঃ সেলুলয়েড

 

হিন্দি ছবির প্রতি আমাদের চরম আগ্রহ। যার ১০ ভাগের দুই ভাগ বাংলা ছবির প্রতি নেই। বাংলা ছবি আমরা পছন্দ করি না কেন? বেশিরভাগ দর্শক উত্তরে কারণ বলবেন, অশ্লীলতা অথবা কাহিনী নকল। তাহলে আমি জানতে চাই হিন্দি ছবিতে কি অশ্লীলতা নেই? হিন্দি ছবির কাহিনী কি নকল হয়না? বর্তমানে হিন্দি প্রতিটা ছবিই কিন্তু অশ্লীল। হিন্দি কোন ছবিতে পোশাকে অশ্লীলতা নেই? সব ছবিতে ছোট পোশাক পরছে মেয়েরা। এই দৃশ্য কিন্তু আমরা আনন্দের সাথে পুরো পরিবার নিয়ে দেখি। তখন কারো কোনো আপত্তি থাকে না। বাংলা সিনেমায় নাইকার পোশাক একটু ছোট হলেই সেটা অশ্লীল। বাংলা ছবি পরিবার নিয়ে দেখলে আমাদের লজ্জা লাগে। তরুণ অনেকের ধারণা বাংলা ছবি দেখলে মান ইজ্জত কমে যায়। অনেককেই দেখেছি হিন্দি বুঝেনা কিছুই তার পরেও হিন্দি ছবি দেখে গান শুনে।

হিন্দি অনেক ছবি ইংলিশ ছবির নকল। ইংলিশ ছবি অনেকেই দেখেন না বলে অনেকেই জানেন না। বাংলা ছবি যেগুলো হিন্দি ছবির নকল সেই ছবি দেখলেই বলি এটা অমুক হিন্দি ছবির নকল কারণ আমরা হিন্দি ছবি দেখি বেশি। নিয়মিত ইংলিশ ছবি দেখে হিন্দি ছবি দেখলে বলবেন ইন্ডিয়ানরা কাহিনী চুরির দিক থেকে আমাদের চেয়েও বড় চোর। আমাদের সিনেমায় সব চেয়ে বড় সমস্যা বাজেট। বাজেট বড় হলে সিনেমাও ভাল হবে। দর্শক হলে গিয়ে সিনেমা না দেখলে প্রযোজকরা বড় বাজেটের সিনেমা নির্মান করবেই বা কেন?

ইদানিং বাংলার নারীদের মন জয় করে নিয়েছে ভারতীয় নাটক গুলো। এর প্রথম কারণ হিসেবে আমার মনে হয় আমাদের চ্যানেল গুলোর অতিরিক্ত বিজ্ঞাপন। দিনে দিনে নাটকের কাহিনীর চেয়ে বিজ্ঞাপনের সময় বড় হয়ে যাচ্ছে। এছাড়া নাটকের ফাকে সংবাদ তো আছেই। বিজ্ঞাপনে বিরক্ত হয়ে রিমোট হাতে নিয়ে চ্যানেল পরিবর্তন করেন প্রায় সব দর্শক। ভারতীয় বাংলা নাটকে বিজ্ঞাপন একটু কম যে কারণে অবসর সময়ে আমাদের দেশের নারীরা ভারতীয় নাটক দেখেন। এখন ভারতীয় বাংলা নাটক দেখা এক প্রকার নেশায় পরিনত হয়েছে তাদের। নাটক দেখে এই নেশা ভারতীয় শাড়ির প্রতি, গয়নার প্রতি। মার্কেটে গেলেই দেখা যায় ভারতীয় শাড়ি, ভারতীয় গয়না।

ভারতীয় নাটকের কাহিনীর চেয়ে আমাদের নাটকের কাহিনী অনেক ভাল। তাদের কাহিনীতে বাস্তবতা নেই। তারা নাটকে দেখায় ঘুমাতে গেলেও দামি গয়না পড়ে ঘুমায়। খাওয়ার সময় দামি শাড়ি। নাটক নয় যেনো শাড়ি গয়নার বিজ্ঞাপন। তার পরেও আমাদের ভারতীয় নাটকের প্রতি আগ্রহ। আমার মনে হয় আমাদের নাটকের ভিতরেও এমন টাইপের বিজ্ঞাপন করা উচিত। তাহলে আমাদের দর্শক আমাদের সাথেই থাকবে।