ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 
আল জাজিরার ভিডিও রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে পুলিশ নিজের হাতে আগুন দিচ্ছে

বাংলাদেশের গাইবান্ধায় সাঁওতালদের গ্রামে পুলিশ নিজের হাতে আগুন দিয়েছে। আন্তর্জাতিক একটি মিডিয়া আল জাজিরার ভিডিও রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে পুলিশ নিজের হাতে আগুন দিচ্ছে। অথচ এই ঘটনায় ম্যাজিস্ট্রেট তদন্ত করে রিপোর্ট দিয়েছিল সেখানে বলা ছিল, ’আদিবাসী ও বাঙালি উচ্ছৃঙ্খল জনতার কার্যকলাপে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী অদিবাসীদের অবৈধ স্থাপনায় আগুন ধরিয়ে দেয়।’

এখন এই ঘটনায় ম্যাজিস্ট্রেট তদন্ত করে কী রিপোর্ট দিয়েছিল তা আলোচনার বিষয় নয়। মূল বিষয় হলো এ ধরনের একটি ঘটনা বাংলাদেশের মধ্যে ঘটল অথচ বাংলাদেশের কোন মিডিয়া তা দেখতে পেল না কেন? বাংলাদেশি মিডিয়ার ক্যামেরা এরকম বিষয়গুলো এড়িয়ে যায় কেন? আল জাজিরা একটি আন্তর্জাতিক মিডিয়া তারা ঘটনাটা ঠিকই পেল।

এই ঘটনা এড়িয়ে যাওয়ার দুটি কারণ হতে পারে-
১. মিডিয়াতে এধরনের খবর জানা ছিল কিন্তু কোন কিছুর (?) ভয়ে তা প্রকাশ করতে পারেনি!
২. এ ধরনের খবর জানার পরও বিশেষ কর্তৃপক্ষকে বাচাঁনোর জন্য ইচ্ছা করেই প্রকাশ করেনি।

বাংলাদেশি মিডিয়ার ক্ষেত্রে উপরোক্ত দুটি ঘটনায় ঘটার সম্ভাবনা প্রবল। কারন বাংলাদেশের মিডিয়া এখন একটি ব্যবসা, সাংবাদিকতা একটি রাজনীতিক ব্যবসা। এ সকল মিডিয়া স্বাভাবিকভাবেই সাধারন জনগনের প্রতিনিধিত্ব করে না। যার ফলে বর্তমান কালে দেখা যায় অনেক রোমহর্ষক ঘটনায় ফেসবুকের মাধ্যমে প্রতিবাদের ঝড় উঠলে তারপর ঐ সকল ব্যবসায়ী মিডিয়াগুলো তা বাধ্য হয়ে কিছুটা প্রকাশ করে।

যেদেশে মিডিয়ার অবস্থা সে দেশে সাঁওতালদের যেরকম ঘটনা ঘটেছে তা ঘটা খুবই স্বাভাবিক। এরকম ঘটনা সামনে যে আরো কত দেখতে হবে! তবে আশার কথা হলো সাধারন সচেতন মানুষ এখন ফেসবুকের মাধ্যমে প্রতিবাদ করে সত্য প্রকাশ করতে শিখেছে। হয়তো ভবিষ্যতে কোন একদিন দেখা যাবে বাংলাদেশি এরকম ব্যবসায়ি মিডিয়াগুলো চিরতরে বন্ধ হয়ে তাদের জায়গা ইন্টারনেট (ফেসবুক সহ অন্যান্য সামাজিক মাধ্যম) দখল করে নিয়েছে।

slide

আল জাজিরার ভিডিও রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে পুলিশ নিজের হাতে আগুন দিচ্ছে