ক্যাটেগরিঃ ব্যক্তিত্ব

 

আজীবন আমেরিকার অন্যায়ের বিরোধিতা করে- নিজে বেঁচে থেকে এবং অন্যদের বাঁচানোর চেষ্টা করে ফিডেল কাস্ত্রো অবশেষে স্বাভাবিক মৃত্যুবরণ করলেন। নজীর হিসেবে বিশ্বে যার দ্বিতীয়জন নেই।

তিনি কিন্তু ‘শান্তিতে নোবেল’ পাননি? অথচ কতজন কত তুচ্ছ কারণে শান্তিতে নোবেল পেয়েছেন! এমনকি আগামীতে শান্তি স্থাপন করবেন- এই মর্মে প্রতিশ্রুতি নেওয়াপূর্বকও কেউ কেউ এই পদক আগ্রীম পেয়েছেন, যেমন মার্কিন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ওবামা!

তালেবানের গুলি খেয়ে বেঁচে যাওয়ায় কিশোরী মালালাও পেয়েছেন এই পদক? অথচ শুধুমাত্র CIA -এর খুনে হাত থেকেই কাস্ত্রো বেঁচেছিলেন প্রায় ছয় শতাধিকবার!

যার কারণে পৃথিবীতে শয়তানীর নামই হয়েছে কিসিঞ্জারী! সেই কিসিঞ্জারও একবার এই পদক পেয়েছেন!

একেই বলে ‘নোবেলে’ আমেরিকার সমর্থন!

যদিও বিশ্বাস করি ফিডেল কাস্ত্রোকে এটা দেওয়া হলেও তিনি তা নিতেন না!

সবশেষে-

মহান নেতা কমরেড ফিডেল কাস্ত্রোর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করছি।

এই পৃথিবীতে অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য ওনার মত নায়ক আমাদের আরও দরকার!

আশাকরি, সক্রেটিসের মত তিনিও এই পৃথিবীতে নন্দিত হবে হাজার হাজার বছর ধরে!

#RIPFIDELCASTRO

২৬/১১/২০১৬