ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

 

কিছুদিন আগে একটা অনলাইন পত্রিকার নিবন্ধে- লেখকদের জন্য বলে যাওয়া আর্নেস্ট হেমিংওয়ের দিক নির্দেশনামূলক কিছু সাজেশন পড়েছিলাম। তাতে তিনি বলেছিলেন, লিখতে চাইলে পড়তে হবে সবার আগে। আর ‘কী লিখবো’ তা নিয়ে চিন্তা না করে একটা সত্য কথা লিখে ফেলতে হবে, তারপর সেই সত্যটাকে ব্যাখ্যা করতে করতে এগিয়ে গেলেই দেখা যাবে আমাদের অবচেতন মন লিখতে শুরু করেছে।

তিনি আরও বলেছিলেন, কাউকে সামনে রেখে লিখতে যাওয়াটা হবে সবচেয়ে সহজ কাজ। যাকে নিয়ে লেখা হচ্ছে যদি সে লেখাটা নাও পড়ে বা পড়ার সম্ভবনা নাও থাকে; তাহলেও একজন লেখকের জন্য তাকে লাগবে। এমকি কি সে যদি মৃতও হয় তাহলেও চলবে!

কিন্তু কবির এই কথা রাখতে গেলে তো আমাদের মত হাতুরে ব্লগারদের মহাবিপদ। এমনিতেই আমরা অনেকেরই মর্মপীড়ার কারণ হয়ে আছি, এরপরও ওটা করতে গেলে তো শেষে ঘৃণার পাত্রটা উপচে পড়ার ঝুঁকি নেওয়া হয়? তাই সেটা না করাই ভাল!

তবে আমার যেটা মনে হয়, কাউকে সামনে না রেখে একটা সত্য কথা লিখে তা নিয়ে এগিয়ে যাওয়া সহজ কাজ।

“খাইলাম না ছুঁইলাম না মধ্য থেকে জাত গেল!” – এটা একটা গ্রাম্য প্রবাদ!

আমরা জানি- সব প্রবাদই তৈরী হয়েছে সমাজে ঘটে যাওয়া হাজার হাজার ঘটনার নির্যাস থেকে! যা সত্য বলে প্রমাণিতও।

উপরে প্রবাদ বাক্যটা দিয়ে কী একটা ব্লগপোষ্ট লেখা যায়? নিতাইদা কী বলেন?

আপনাকেই সামনে রাখাটা সবচেয়ে নিরাপদ বলে মনে হচ্ছে!

১১/০৪/২০১৭