ক্যাটেগরিঃ প্রকৃতি-পরিবেশ

 

ষড় ঋতুর দেশ বাংলাদেশ। মাত্র আড়াই মাস আগেও সিলেটে অনুভব হত শীত। কুয়াশা ভরা প্রকৃতিতে পরিস্কার দূরের কোন কিছুই স্পস্ট দেখতে পাওয়া যেতনা। সিলেটের ঐতিহ্যবাহী কিন ব্রিজ, আমজাদ আলীর ঘড়ি ঘর এর পাশেই সার্কিট হাউস। ২০১৬ সালে সেখানে স্থাপন করা হয় ভাস্কর্যটি। ২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে সার্কিট হাউস প্রাঙ্গন থেকে ছবিটি তোলা। তখন ছিলো ঋতুরাজ বসন্ত। ছবিটি তোলার সময় গানের কয়েকটি লাইন বার বার মনে পড়ছিল…

ঐ নতুন যুগের সূর্য তোর নয়নে নয়নে জ্বালা
বাজে পরানে আশার সূর্য আর কন্ঠে বিজয়মালা,
চিরযৌবন জাগেরে, জাগে চিরচঞ্চল।

মোরা স্বপ্ন দেখি যে আজ ঐ সুন্দর হল ধরা
মানুষের প্রেমে আজ মানুষের বুক ভরা।

 

Simon3-001 copy

ছবি- সুমন দে।

এখন পৃথিবীর বিভিন্ন রাসায়নিক ও পরিবেশ বিপর্যয়ে সবচেয়ে ক্ষতির ও হুমকির মুখে আবহাওয়ার পরিবর্তনে রয়েছে বাংলাদেশ। ‘জলবায়ু পরিবর্তন’ আজ বিশ্বের সকল মানুষের কাছেই একটি পরিচিত শব্দ। যার প্রভাব আজ বিশ্বের প্রায় সকল দেশেই পড়লেও সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ ষড় ঋতুর দেশ হলেও আজ জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে দেশের আবহাওয়াও অনেক পরিবর্তন হয়ে গেছে। ষড় ঋতুর বাংলাদেশের সঙ্গে আজ অনেক সময়ই মিল খুঁজে পাওয়া যায় না। আর আবহাওয়া পরিবর্তনে দেশের ফসল, মানুষের জীবনযাত্রা সব কিছুতেই ঘটেছে পরিবর্তন। সব মিলিয়ে মানুষের জীবনে বয়ে আনে মারাত্মক বিপর্যয়। ভৌগলীক কারনে বৃহত্তর সিলেট এর চার দিকে ভারতের হিমালয় পাহাড়ে বেষ্টিত। আবহাওয়ার পরিবর্তনে সিলেটে সম্প্রতি অকাল বন্যাসহ বিভিন্ন ভাবে প্রাকৃতিক প্রলয় দেখা দিচ্ছে। ঘন ঘন হচ্ছে ভুমিকম্প। সিলেটের সিমান্তবর্তীতে গেলে দেখা যায় ভারতের পাহাড় সবুজ কিন্তু নিম্নাঞ্চল বাংলাদেশের এলাকা জড়ে পাথর উত্তলনে মরূভূমির রূপ ধারণ করেছে। দেশের ও প্রকৃতির প্রলয় হতে রক্ষা পেতে আশু সরকার কর্তৃক ব্যবস্থা গ্রহন না করলে. বাংলাদেশ নামের মানচিত্রটি বিশ্ব মানচিত্র হতে বিলিন হয়ে যাবে!