নৈতিকতা তৈরি ও ধ্বংস করা- উভয়ের কারিগর ‘অভিভাবক’

/

প্রতিটি শিশুর মানসিক বিকাশ তার পারিপার্শ্বিক পরিবেশের উপর নির্ভর করে। শুধু শিশু না, প্রাপ্ত বয়স্করাও তাদের পারিপার্শ্ব দ্বারা প্রভাবিত হয়। যেমন শহরে রাত ১২/১ টায় ঘুমোতে যাওয়া মানুষটাও গ্রামে গেলে ৯/১০ টার মধ্যেই ঘুমিয়ে পরে। তবে শিশুর ক্ষেত্র এই প্রভাবটা চরম রকম। একটি শিশু জন্মের পর, একটুকরো নরম মাটির মতন। একে যেভাবে গড়া হবে, সে… Read more »

মাঝে মাঝে জীবন হয়ে ওঠে অতুলনীয়

/

গত তিনদিন ধরে পকেটে বিশ টাকা নিয়ে ঘুরছি। টাকা না থাকলেও আমার কোনো কাজ এবং জীবন থেমে থাকে না। টাকা না থাকলে শুধু মাছ মাংস খাওয়া বন্ধ হয়ে যায়, তখন ডিম দুধ ডাল খাই শুধু। সবজিটাও বাদ পড়ে। কারণ, মুদির দোকানে সবজি মাছ মাংস পাওয়া যায় না। বিপদ হয় এই সময় কোনো অতিথি আসলে। কালকে… Read more »

যে কারণে পুরুষের পরিবর্তে নারীকে ক্ষুদ্রঋণ দেয় ব্র্যাক ও অন্যান্য এনজিও

/

ব্র্যাকসহ অন্যান্য এনজিওতে পুরুষের পরিবর্তে নারীকে কেন ক্ষুদ্র ঋণের গ্রাহক হিসাবে নির্বাচন করা হয় এমন প্রশ্ন যদি সাধারণ কোন মানুষকে করা হয় তাহলে হয়তো অনেকেই হেসে উত্তর দিবেন; নারী সহজ-সরল তাকে সহজেই পটাতে পারে এনজিও কর্মকর্তারা। আবার হয়তো কোন কোন রক্ষণশীল মানুষ বলতে পারেন, ব্রাক এবং অন্যান্য এনজিও বিদেশি সহায়তা পায়। বিদেশী সহায়তায় কাজ করছে… Read more »

ভালোবাসি-ভালোবাসে কোন শর্ত ছাড়াই

/

ছোট কাল থেকেই আম্মাকে হারিয়েছি তাও সেই ছোট থাকতেই বয়স হয়ত বছর হবে। দিন শুরু কষ্টের মাঝে রাত শেষ কান্নায় ভিজানো বালিশে মাথা রেখে। মাঝে অনেক গুলো বছর কেটে গেছে দোজখের ভয়াবহ কষ্ট নিয়ে তার পরেও থেমে ছিল না জীবন। ২০০৬ ইং ৭ই সেপ্টেম্বর মধ্যরাতে দুনিয়ার কোলে আসে এক নতুন মুখ (খালাত ভাইয়ের ছেলে)। নাম… Read more »

ঘুরে এলাম তানজানিয়া (৫ম কিস্তি- মসলা সফর)

/

১৮ মে, ২০১৮। জানজিবারে এসেছি বেড়াতে। হোটেলে থেকে আরাম আয়েস করার জন্য নয়। কিন্তু আমি এখানে সঙ্গিহীন। আর এ সময়টি পর্যটনের জন্য মন্দার মওসুম। এসময় পর্যটকের সংখ্যা থাকে সবচেয়ে কম। তাই অন্যদের সাথে ভাগাভাগি করে দর্শনীয় স্থানে ভ্রমণ করা অনেকটাই অসম্ভব। হোটেলের লবিতে একটি চার্টে ডলফিন ড্রাইভ, প্রিজন আইল্যান্ড ভ্রমণ, সিটি টুর, ইস্টকোস্ট টুর ইত্যাদির… Read more »

বিশ্বকাপ ফুটবল ও এর উপকারিতা

/

চার বছর পর পর বাংলার মানুষ বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে যে উন্মাদনা দেখায়; আমি একে পজিটিভলি দেখি। কারণ আমি মনে করি- এতে করে এক মাস সময়কাল ধরে এরা নির্ভেজাল আনন্দে থাকে, হৈ হুল্লোড় করে; বাড়ী, পাড়া, মহল্লা মাতিয়ে রাখে। আর এটা কে না জানে, মানুষ আনন্দে বা হাঁসিখুশি থাকলে সে শারীরিক ও মানসিক ভাবে সুস্থ থাকে… Read more »