মাদ্রাসা, কওমি মাদ্রাসা এবং ধর্মীয় শিক্ষার সমাজতাত্ত্বিক বিশ্লেষণ

/

দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার সবটুকুই সরকার নিয়ন্ত্রণ করে না। যেটুকু নিয়ন্ত্রণ করে, সরকারের নীতির প্রতিফলন সেইটুকুর মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে। সরকারের ব্যবস্থার বাইরে যদি কোন শিক্ষা না চলত, তাহলে কওমী মাদ্রাসাকে নিয়ন্ত্রণ করা সরকারের জন্য সহজ হত। কিন্তু আমার জানা মতে দেশের সব শিক্ষাকে সরকার নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনা কিংবা করে না। যেমন ধরুন ইংরেজি মাধ্যমের এ লেভেল,… Read more »

মোহাম্মদ আলী জিন্না ও ভারত বিভাজনঃ যশোবন্ত সিংহের প্রাণবন্ত পর্যালোচনা

/

‘জিন্না: ভারত, দেশভাগ ও স্বাধীনতা’—-বইটি পড়া শুরু করেছিলাম এপ্রিলের দুই তারিখে। শেষ করলাম ২৩ তারিখে। মানে প্রায় ২১ দিন লেগেছে এটা সম্পূর্ণ পড়া শেষ করতে। প্রায় সাড়ে চারশ পৃষ্ঠার বই। বইটির লেখক যশোবন্ত সিং। মূল বইটি ইংরেজিতে। তবে এর হিন্দিসহ অন্যান্য ভাষায় অনুবাদ বেরিয়েছিল প্রায় সাথে সাথেই। আমার কাছে যে কপিটি আছে তা বাংলা। এটা… Read more »

সিঙ্গাপুর পুলিশ নিরপেক্ষতাও আমদানি করে

/

সিংগাপুর একটি পর্যটন সুবিধা ও সার্ভিস বিক্রেতা দেশ। সামান্য কিছু উচ্চ মার্গের শিল্পদ্রব্যের বাইরে তাদের রপ্তানী করার তেমন কিছু নেই। বেঁচে থাকার জন্য যেসব খাদ্যের প্রয়োজন তার পুরোটাই আমদানী করতে হয় বিদেশ থেকে। কৃষি উৎপান সিংগাপুরের অর্থনীতিতে মাত্র ০.০১ ভাগ অবদান রাখে। তাই আজকে যদি অন্য দেশগুলো সিংগাপুরে খাদ্যদ্রব্য রপ্তানী বন্ধ করে দেয়, তাহলে আগামী… Read more »

দণ্ড হিসেবে বেত্রাঘাতঃ সিংগাপুরি উপাখ্যান

/

পৃথিবীর ফৌজদারি বিচার ব্যবস্থায় সনাতনি শাস্তি হল শারীরিকভাবে কষ্ট দেয়া। আদিতে এ কষ্ট দেয়ার প্রক্রিয়া ছিল অত্যন্ত নিষ্ঠুর। মিশেল ফুকোর ‘ডিসিপ্লিন এন্ড পানিশ’ গ্রন্থের শুরুর দিকেই এমন একটি শারীরিক শাস্তির বর্ণনা দেয়া হয়েছে। একজন অপরধীকে ১৮ দিন ধরে শারীরিক শাস্তি দিযে শেষ পর্যন্ত হত্যা করা হয়। শাস্তির শুরু হয় প্রথম দিন অপরাধীর একটি হাত  ফুটন্ত… Read more »

জেল কোড সংশোধন-একটি দীর্ঘ প্রক্রিয়া

/

বাংলাদেশে প্রথম কারাগার স্থাপিত হয়েছিল ১৭৮৮ সালে ঢাকায়। প্রথম দিকে এটাকে বলা হত ক্রিমিনাল ওয়ার্ড। কিন্তু কারাগারের ব্যবস্থাপনার বিধান সম্বলিত একটি কোড তৈরি করা হয়েছিল ১৮৬৪ সালে। এর পর কোডে সাতবার সংশোধনী এসেছে। সর্বশেষ সংশোধনী এসেছিল ১৯৩৭ সালে। এর পর ব্রিটিশ শাসনের অবসানের পর পাকিস্তানের মধ্য দিয়ে স্বাধীন হয় বাংলাদেশ। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ারও হতে চলল… Read more »

অস্ত্রকে বিশ্বাস করা যায়, মদকে নয়

/

বিজ্ঞজনরা মনে করেন, মানুষের অধঃপতনের পিছনে তিনটি বস্তু কোন না কোনভাবে ক্রিয়াশীল থাকে। এগুলোকে ইংরেজি নামের অদ্যাক্ষর ব্যবহার করে ‘থ্রি ডাব্লিউ’ বলা হয়। এগুলো হল, মদ (ওয়াইন), সম্পদ (ওয়েলথ) ও নারী (উইমেন)। কিন্তু পৃথিবীর অনেক জাতির কাছে এগুলোর সাথে একটি  চতুর্থ শব্দ যুক্ত হয়েছে। এটা হল, ‘এ’ (আর্মস) । সম্পদের জন্য যুদ্ধ হয় বটে, তবে… Read more »

ব্রিটিশ রানীর মেহমান ও বাংলাদেশ পুলিশের আসামীগণ

/

ব্রিটিশ বিচার ব্যবস্থায় আইনের হেফাজতে আসা আদম সন্তানদের বলা হয় রানীর মেহমান (Queen’s Guest)| কারণ, রাষ্ট্রের হেফাজতে আসা সকল নাগরিককে ভাত-কাপড় দেওয়ার দায় খোদ রাষ্ট্রের। তাই, ব্রিটিশ পুলিশের হেফাজতে থাকা ব্যক্তিদের খাওন-পরনের ভার পুলিশ সদস্যদের ব্যক্তিগতভাবে নিতে হয় না। কিন্তু, বাংলাদেশ পুলিশ সদস্যরা প্রতিনিয়তই ব্যক্তিগত খরচে আসামীদের ক্ষুন্নিবৃত্তি করে। সরকারি দায়িত্ব পালন করতে পুলিশ অফিসারদের… Read more »

পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগঃ ব্রিটিশরা যা করে

/

পুলিশের ক্ষমতা, কর্তৃত্ব কাজের ধরণ এমনিই যে দায়িত্ব পালনের যে কোন পর্যায়েই পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ উত্থাপন করা যায়। আইন প্রয়োগের দায়িত্ব পালন করলেও পুলিশ অহরহ আইন ভঙ্গের অভিযোগে অভিযুক্ত হয়। ঘুষগ্রহণ থেকে শুরু করে পুলিশের বিরুদ্ধে মাত্রাতিরিক্ত বল প্রয়োগ, ক্ষমতার অপব্যবহার, রুক্ষতা, রূঢ়তা এমনকি সাধারণ মানের ফৌজদারি অপরাধ যেমন, খুন, ধর্ষণ, অপহরণ, মাদক ব্যবসা ইত্যাদির… Read more »