১৯৭১ এ ঈদের দিন পাকবাহিনী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হত্যা করে ৩৯ জন কারাবন্দি মুক্তিযোদ্ধাকে

/

ঈদ মানে আনন্দ, ঈদের দিনকে কেন্দ্র করে হাজার হাজার কোটি টাকার ব্যাবসা হয় আমাদের এ সোনার বাংলায়। ১৯৭১ এর ঈদুল ফিতর কেমন ছিল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়, নতুন প্রজন্মের অনেকই জানিনা। ২০ নভেম্বর থেকে ০৮ ডিসেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঈদের জামাতে সাধারণ মানুষের সংখ্যা হাতেগোনা। বাড়ী বাড়ী হুমকি দিয়ে কিছু লোক জমায়েত করা হয়েছিল। মাঠ ছিল বর্তমানের তিন ভাগের একভাগ।… Read more »

মুক্তিযুদ্ধের সময় বিধ্বস্ত সিলেটের ঐতিহ্যবাহী কিন ব্রিজ

/

মুক্তিযুদ্ধের সময় বিধ্বস্ত (সুরমা নদীর উত্তর পাড়ে) সিলেটের ঐতিহ্যবাহী কিন ব্রিজের ছবি এটি। বিলুপ্ত ছবিটি ২০১৫ সালে ১৬ ডিসেম্বর সিলেটে মুক্তিযুদ্ধ জেলা কমান্ডের আয়োজনে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠান থেকে তোলা। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের বিলুপ্ত আলোকচিত্র সংরক্ষণের জন্যে এ ছবিটি তুলেছি।

মুক্তিযুদ্ধের চিত্রপট মুজিবনগরে

/

ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ পিলখানা আক্রমণ   সচিবালয় আক্রমণ   জগন্নাথ হল আক্রমণ   ১০ এপ্রিলের ঘোষণাপত্র   অস্হায়ী রাষ্ট্রপতিকে গার্ড অব অনার প্রদান গার্ড অব অনার প্রদান বাংলার মীরজাফর খ্যাত খোন্দকার মোশতাককে দেখা যাচ্ছে বৈঠকরত সামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ নারী নির্যাতন হানাদার কর্তৃক অগ্নিসংযোগ   শরণার্থীদের ভারত গমন   বেনাপোল বনগাঁ সীমান্ত দিয়ে ভারত গমন  … Read more »

যেভাবে চুয়াডাঙ্গা বাংলাদেশের প্রথম অস্হায়ী রাজধানী

/

বাংলাদেশ স্বাধীন হলো ৪৫ বছর হয়েছে কিন্তু স্বাধীনতার প্রতিরোধ পর্বে তৎকালিন কুষ্টিয়া জেলার ছোট্ট শহর চুয়াডাঙ্গা মহাকুমার ঐতিহাসিক পর্বের ঘটনা বাংলাদেশের নাগরিকদের অনেকেরই অজানা।১৯৭১ সালের ১০ এপ্রিল বাংলাদেশের অস্হায়ী রাজধানী হিসেবে চুয়াডাঙ্গার নাম ঘোষণা করা হয়।প্রথম রাষ্ট্রীয় মনোগ্রাম ও সিলমোহর তৈরি হয়েছে চুয়াডাঙ্গা থেকেই। হাসান হাফিজুর রহমান সম্পাদিত ‘স্বাধীনতা যুদ্ধের দলিলপত্র‘১৫শ খণ্ডে প্রকাশিত সাক্ষাৎকারে ব্যারিস্টার… Read more »

প্রমাণিত যুদ্ধাপরাধীর বেকসুর খালাস হতে পারে না

/

জাতিগত অস্তিত্বকে টিকিয়ে রাখতে আমরা যে প্রতিরোধ যুদ্ধের লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিলাম ঠিক সেই সময় আমাদেরকে নির্মূল করতে যারা একের পর এক মানবতাবিরোধী অপরাধ করার দুঃসাহস দেখালো তাদের বিচার না করার কোনো কারণ ও যুক্তি থাকতে পারে না। মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর ধ্বংসযজ্ঞের সচিত্র প্রতিবেদন বৃটিশ টেলিভিশনে দেখানো হলে জামায়াতের মুখপত্র ‘দৈনিক সংগ্রাম‘ ১৯ জুলাই লিখলো-এগুলো… Read more »

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে একজন মু্ক্তিযোদ্ধার সন্তানের প্রশ্ন

/

২০১৭ সালের মার্চ মাসের ২৬ তারিখে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ৪৭তম মহান স্বাধীনতা দিবস। যা অর্জিত হয়েছিলো কিছু দুঃসাহসিক দেশপ্রেমী মহান মু্ক্তিযোদ্ধার জীবনবাজি অভিযানের ফলশ্রুতিতে। যার বিনিময়ে জাতি পেল বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার বিরল সন্মান! কিন্ত অর্জিত এই স্বাধীনতা যাদের অকৃত্রিম বিসর্জনের ফসল তারা কি আজ সবাই সমাজে স্বীকৃত? না কিছু স্বার্থান্বেসী মানুষের ভীড়ে ছিটকে… Read more »

স্বাধীনতা দিবস ভাবনা

/

“স্বাধীনতা তুমি রবিঠাকুরের অজর কবিতা, অবিনাশী গান। স্বাধীনতা তুমি কাজী নজরুল ঝাঁকড়া চুলের বাবরি দোলানো মহান পুরুষ, সৃষ্টি সুখের উল্লাসে কাঁপা- স্বাধীনতা।” স্বাধীনতার লাল সূর্য ২৬ শে মার্চ ১৯৭১ এর প্রথম প্রহরে উঠেছিলো বাংলার আকাশে। যে স্বাধীনতার জন্য পাক সেনাদের নির্মম অত্যাচারের স্বীকার হতে হয়েছিলো। সে স্বাধীনতাই এলো ২৬ শে মার্চ সকালে। তবে ততক্ষণে ইতিহাসের… Read more »

স্বাধীনতা দিবস: প্রকৃত উদ্দেশ্য এবং বাস্তবায়ন

/

২৬শে মার্চ বাঙালির জাতীয় ও স্বাধীনতা দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার আনুষ্ঠানিক সূচনা হয়েছিল। প্রতিবছর এই দিনটি এদেশের মানুষের মাঝে স্বাধীনতার চেতনা জগ্রত করার নতুন বার্তা নিয়ে আসে। ২৫শে মার্চের মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া ইতিহাসের বর্বর হত্যাযজ্ঞের ধ্বংসস্তুপের মধ্য থেকে উঠে দাঁড়িয়ে মুক্তিযুদ্ধের শপথ গ্রহণ করা হয় এই দিনে। ১৯৪৭ সালের আগস্টে… Read more »

জাতীয় গণহত্যা দিবসকে ‘আন্তর্জাতিক দিবস’ হিসেবে স্বীকার ও স্বীকৃতি দিন

/

একাত্তরের ২৫ মার্চ রাতের গণহত্যাকে সমর্থন করে জামায়াতে ইসলামীর মুখপত্র ৮মে তারিখের সংখ্যায় বলে- শেখ মুজিব ২৬ মার্চ সশস্ত্র বিদ্রোহের মাধ্যমে স্বাধীন বাংলা কায়েমের পরিকল্পনা এঁটে ছিলেন।সেনাবাহিনী তা জানতে পেয়ে ২৫ মার্চ হঠাৎ আক্রমণ চালিয়ে এই পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দিয়ে আমাদের পাকিস্তানকে বাঁচিয়েছে। অর্থাৎ জামায়াত দল হিসেবে সম্পূর্ণভাবে স্বীকার করে নিয়েছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী ২৫ মার্চের… Read more »

পুত্রের কয়েকটি পত্র ও পরিবারে পিতার প্রত্যাবর্তন

/

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ বঙ্গবন্ধুকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং ০২ এপ্রিল তাঁকে পশ্চিম পাকিস্তানে নিয়ে যাওয়া হয়। ১১ আগস্ট মিয়াওয়ালি জেলে সামরিক আদালতে বঙ্গবন্ধুর বিচার শুরু হয়। এ সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী ২৪ জন রাষ্ট্রপ্রধানের কাছে মুজিবকে বাঁচান’ জরুরি বার্তা পাঠান। ১৫ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধুর ফাঁসির আদেশ দেওয়া হয়। ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীন হলে বঙ্গবন্ধুর… Read more »