ক্যাটেগরিঃ ব্যক্তিত্ব

 
মরহুম লুৎফর রহমান খান

আজ পাবনার বিশিষ্ট সমাজ সংস্কারক অসাম্প্রদায়িক সমাজ গড়ার কারিগর মরহুম লুৎফর রহমান খান এর নবম মৃত্যু বার্ষিকী। ২০০৭ সালের ১২ মে দিবাগত রাত ১১টা ৫০ মিনিটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে এই কৃতী সন্তান শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মরহুম লুৎফর রহমান খান ১৯৫২ সালে পাবনার সম্ভ্রান্ত খান পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তার জন্মস্থান পাবনার চরতারাপুর ইউনিয়নের ছায়া সুনিবিড় গ্রামে।বর্নাঢ্য জীবনে মরহুম লুৎফর রহমান খান গণ মানুষের দুঃখ,দুর্দশা মোচনের জন্য কাজ করেছেন।তিনি ছিলেন অসাম্রদায়িক চেতনায় উদ্বুদ্ধ একজন আলোকিত মানুষ।যিনি পাবনার সাদুল্লাপুর ও চরতারাপুর ইউনিয়নে সকল সম্প্রদায়ের মাঝে পারস্পারিক সম্প্রীতি বজায় রাখতে শান্তির দূত হিসাবে কাজ করেছেন। তিনি হিন্দু-মুসলিম প্রীতি বজায় রাখতে সর্বচ্চ সচেষ্ট ছিলেন আমৃত্যু। তাই সেই ধারা অব্যহত রেখে আজ অবধি এই অঞ্চলে হিন্দু-মুসলিম সম্প্রদায়ের মাঝে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। সকল সম্প্রদায়ের আস্থাভাজন হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছিলেন এই বিদগ্ধ সমাজ সেবক। মরহুম লুৎফর রহমান খান মোমবাতির মত আলো বিলিয়ে দিয়েছেন। দু’হাত ভরে তার সবটুকু বিলিয়ে দিয়েছেন গণ মানুষের কল্যাণে।এলাকাবাসী তার অবদান শ্রদ্ধাবনত মস্তকে সব সময় স্বীকার করে।

তিনি একটি পশ্চাৎপদ জনপদকে করেছেন আলোকিত। তিনি বুঝতে পেরেছিলেন একটি সমাজ থেকে অন্ধকার দূর করতে চাইলে শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। তাই তিনি সাদুল্লাপুর ও চরতারাপুর ইউনিউয়ন বাসীকে শিক্ষিত করে গড়ে তোলার জন্য দুবলিয়াতে স্কুল ও কলেজ প্রতিষ্ঠা করতে অপরিসীম অবদান রেখেছেন তার সমমনা মানুষকে একত্রীত করে। নারী ও পুরুষের বৈষম্য দূর করতে তিনি নারী শিক্ষার প্রতি অধিকতর গুরুত্ব আরোপ করেছিলেন। এরই ফলশ্রুতিতে দুবলিয়াতে বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় তিনি ব্রত হন। আজ এই দুই অঞ্চলের সুবিধা বঞ্চিত নারীরা সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে।

রাজনৈতিক ভাবে তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে একটি অসাম্প্রদায়িক সমাজ গড়ে তুলেছিলেন পাদপ্রদীপের আলোর বাহিরে থাকা দুটি ইউনিয়নের মানুষ নিয়ে। সারা জীবন মরহুম লুৎফর রহমান খান বৈষম্যের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন। ছাত্র জীবন থেকেই রাজনীতির সাথে জড়িত হয়ে পরা পাবনার এই কৃতী সন্তান ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত সাদুল্লাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসাবে মরহুম লুৎফর রহমান খান দায়িত্ব পালন করছিলেন।