ক্যাটেগরিঃ শিল্প-সংস্কৃতি

 

191501154200star_plus_kalerkantho_pic_star_jalsha_
ভারতীয় বাংলা ভাষাভাষী বন্ধুদের কাছে আমার প্রশ্ন, আসলেই কি আপনাদের পরিবারের সব মহিলারাই কুটিল, পরশ্রীকাতর? তারা কি সারাদিন নিজেদের মধ্যে হিংসা হানাহানিতেই ব্যস্ত থাকেন? ঘরের প্রতিটি মানুষ সারাক্ষণ যুদ্ধংদেহী হয়ে থাকেন? একজনকে সবাই মিলে ক্রমাগত নিগৃহীত করে থাকেন? ঘরের বউকে পারার ছেলেদের হাতে পর্যন্ত তুলে দেন! আবার তাদের ছেলেরা ঘরে একটি বউ থাকতেই আরেকটি মেয়েকে ঘরে এনে তোলেন কোন নৈতিক সম্পর্ক ব্যতিরেকেই? প্রকৃত বউকে শিক্ষা দিতে অন্যেরা আবার তাকে প্রশ্রয়ও দেন! পক্ষান্তরে আপনারা পুরুষেরা কি সব অথর্ব, অকর্মণ্য? আপনারা এ সব অন্যায় আচরণের কোন প্রতিকার তো করতে পারছেনই না উল্টো এক একজন মহিলাদের এক এক পক্ষ হয়ে উল্টো পক্ষের সাথে বর্বর আচরণ করেন? এটাই কি আপনাদের পরিবারের আসল চিত্র? ভারতীয় পুরুষদের মধ্যে যারা ঘরে বাইরে এত ধর্ষণ করে বেড়াচ্ছেন তা কি তাহলে ঘরের মধ্যে এমন মূল্যহীন হয়ে পরার ফল?

আপনাদের চ্যানেলগুলি কিন্তু আমাদের কাছে সেই বার্তাই পৌঁছে দিচ্ছে। যেহেতু আপনারা এর কোন প্রতিবাদ করেন না, কাজেই আমরা ধরে নেব এটাই সঠিক। আমরা বাংলাদেশের মানুষ কিন্তু এ ক্ষেত্রে গর্ব করে বলতে পারি। যদিও আমাদের পুরুষ শাসিত সমাজ তথাপিও আমাদের সমাজে মহিলারা সম্মানের সাথেই বসবাস করেন। আমাদের পরিবারেও মনোমালিন্য, ঝগড়াঝাঁটি হয়। তবে তা কখনোই প্রাতিষ্ঠানিক রূপ লাভ করে না। আমাদের পুরুষগণ যেমন মহিলাদের ভুল ধরিয়ে দেন তেমনি মহিলারাও পুরুষদের ভুল-ত্রুটি ধরিয়ে দেন। প্রয়োজনে বয়োজ্যেষ্ঠরা শাসনও করেন।

আমাদের চ্যানেলগুলিতে পরিবেশিত নাটকেও কিন্তু সেই সামাজিক চিত্রটাই ফুটিয়ে তোলা হয়। আমার কথা হল আপনারা যদি সত্যিই এমন না হন তাহলে তো প্রতিবাদ করা উচিৎ। আপনাদের আগামী প্রজন্মকে এমন অবক্ষয়ের শিক্ষা কি করে দিচ্ছেন?

আপনারা যদি সত্যিই এমন হয়েও থাকেন তাও তো বিশ্ববাসীর কাছে নিজেদের এই বাজে চিত্রটা ফুটিয়ে তোলা উচিৎ নয়। একটি দেশের কৃষ্টি, সামাজিক অবস্থা এমনকি অবক্ষয় পর্যন্ত ফুটে ওঠে তাদের সাহিত্য, নাটক, চলচ্চিত্রে। ভারতীয় টিভি চ্যানেল বিশ্ববাসীকে নিজেদের সম্পর্কে তাহলে কি বার্তা দিচ্ছে?

kmgmehadi@gmail.com