ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

আমরা যারা মুক্তিযুদ্ধের সেই অসাধারণ সময়ের পরে জন্মগ্রহন করেছি, সেই আমরা আমাদের ইতিহাস জানতে চাই। সত্য ইতিহাস । আমার জন্ম নেয়ার ইতিহাস জানা আমার অধিকার। আমি জারজ সন্তানের পরিচয় নিয়ে বড় হতে চাই না। অমুক আমার পিতা। অমুক আমর মা। অমুক আমার দাইমা, যিনি আমার জন্মের সময় ছুরি কাচিঁ চালিয়ে বের করে এনেছে মহাকালের জঠর থেকে। যিনি এখন দাবী করেন তিনি না হলে মায়ের জঠরেই অপমৃত্যু হতো আমার। যারা আমাকে এখন তাদেরই সম্পত্বি বলে ভাবেন। কিন্তু আমার যারা পরিচিত জন, আমার প্রতিবেশি, তারা তো বলেন ভিন্ন কথা। আমি সত্যটা জানতে চাই।
আমার চারপাশে সেই উত্তাল সময়ের যে মহাপ্রান জীবিত মুক্তিযোদ্ধারা বসবাস করেন, যাদের দেখলে আমার অহংকারে বুক টা ফুলে আকাশ ছোঁয়ার কথা তাদেরকে কেন আমি বিশ্বাস করতে পারছি না ? কেন মনে হয় সত্য সত্য কি এই মানুষটা নিজের জীবনটা মৃত্যুর কাছে বন্ধক রেখে আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন ? প্রায় সময় পত্রিকায় দেখি অমুক মুক্তিযোদ্ধার সার্টিফিকেট ভূয়া !! অনেকের বয়সই নাকি তখন ১০ বছর ছিলো !! যোদ্ধার তালিকায় যাদের নাম উপরের দিকে, তাদেরকে তো কখনো দেখলাম না এর প্রতিবাদ করতে? আমাদের রক্ত কি তবে নষ্ট হয়ে গেলো ?। তথাকথিত বুদ্ধিজীবিরা নিজেদের মত করে আমার ইতিহাস রচনায় পেরেশান। কাকে বিশ্বাস করেবা আমি ? কেন বিশ্বাস করতে পারছি না আমারই জন্মের ইতিহাস । আমার বাংলাদেশের জন্মের ইতিহাস ।