ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 

মাঝে মাঝে মনে হয় জাতিগত ভাবেই আমাদের রক্ত দূষিত হয়ে গেলো কি না !! নয়তো দিন দিন আমরা এমন হয়ে যাচ্ছি কেন । নৈতিক মূল্যবোধ, মানবিকতা, চিরতা’র পানির মত মুখে নিয়েই ওয়াক-থুঃ বলে ফেলে দেয়ার মত অবস্থা কেন হলো আমাদের । মানুষ হিসেবে একজন মানুষের সাথে সামান্যতম সৌজন্য দেখানোর মত মানবিকতাও আমাদের অবশিষ্ট থাকবে না ! একজন মানুষকে মারতে মারতে উলঙ্গ করে ক্যামেরার সামনে ঔদ্ধ্যত মডেলদের মত পোজ দিতে কোন শিক্ষা আমাদের প্ররোচিত করে।

আমার ট্যাক্স এর টাকা ( সামান্য ভগ্নাংশ হলেও ) বেতন দিয়ে আমার জান-মাল এর নিরাপত্তা প্রদান করার জন্য যাদেরকে নিয়োগ দেয়া হয়। প্রশিক্ষন দেয়া হয় (আমার নিজের পরিবার পরিজন নিয়ে জীবনধারন কষ্টকর হলেও) যে বেতন দিয়ে পুলিশ কর্মকর্তারা তাদের সন্তানদের মুখের খাবার তুলে দেন, পড়া-লেখা করান। রাস্তায় বের হলে সেই পুলিশের ভয়েই আমাকে তটস্থ থাকতে হয়। কেন ?

দিনের পর দিন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ গুলি পড়লে বা দেখলে মনে হয় কোনভাবে একবার চাকরিটা পেলেই হয়। সেটা অর্থনৈতিক লেনদেনর মাধ্যমে হোক, রাজনৈতিক বিবেচনা, আত্মীয়তার বিবেচনা কিংবা নিজ যোগ্যতা বলেই হোক। ( পত্রিকায় প্রকাশিত তথ্য মতে ) সেই ‘ মানুষ’ টা তখন ‘ পুলিশ ‘ হয়ে যায়। তারপর সেই পুলিশ তখন আবার সরকারের পুলিশ হয়ে যায়। মাঝখানে আমার অবস্থা হয় ” আমি কার খালুরে……. ” আর কতদিন “থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার” হয়ে থাকতে হবে আমাকে।

পুলিশের চাকরিটা কেন ? তাদের আসলে কাজটা কি ? এই কথাটা টা তাদেরকে বলবে কে ?