ক্যাটেগরিঃ আর্ত মানবতা

ছোট্ট একটি মায়াবী মুখ। নাম তার সিনথুল। তার বয়স ১১, পড়াশুনা করছে চতুর্থ শ্রেণীতে। তার জীবনের চলার পথ বলতে গেলে শুরুই হয়নি। জীবনের অনেক পথ এখনও বাকী। কিন্তু তাকে সেই পথ পাড়ি দিতে সুযোগ দিতে চায়না মরণ ব্যাধি ক্যানসার।

হ্যাঁ প্রিয় বন্ধুরা । সিনথুলের বয়স যখন ৫ বছর তখন ডাক্তাররা প্রথম বুঝতে পারেন যে ওর “স্পিনার” অকারণেই বেড়ে চলছে। আর সেই ক্ষত বেড়ে আজ তা পরিণত হয়েছে ঘাত ক্যানসারে।

ওর বাবা চাকুরী করেন একটা ঔষধ কোম্পানিতে। সংসারের খরচ চালাতে ও মেয়ের চিকিৎসার টাকার যোগানের জন্য তার গৃহীনি মা টিউসিনি করছেন।

কলিকাতার এপোলো হাসপাতাল বলে দিয়েছে এক বারে নগদ ১২ লক্ষ টাকা জমা করলে তার অপারেশন করা সম্ভব এবং সিনথুল ফিরে পাবে তার স্বাভাবিক জীবন। তার বাবা মানিকগঞ্জের বসত-বাড়ী ও জমি-জমা বিক্রি এবং আত্মীয় স্বজনের কাছ হতে ধার-দেনা করে এ পর্যন্ত ৫ লক্ষ টাকার ব্যবস্থা করেছেন। আরও দরকার শুধু চিকিৎসার জন্যই ৭ লক্ষ টাকা। যা এখন তাদের জন্য প্রায় অসম্ভব এক ব্যাপার।

তাই আসুন আমরা যে যা পারি, যেভাবে পারি এই ছোট্ট সোনামণিটির পাশে দাড়াই। বাড়িয়ে দেই সাহায্যের হাত।

তার জন্য সাহায্য পাঠাতে পারেন:
লিখন ভুঁইয়া, উত্তরা ব্যাংক লিমিটেড, হিসাব নম্বর-৩৪৭৪
সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন:
(৮৮) ০১৭১২ ০৯৯ ৮৫৩ এবং (৮৮) ০১৭১৩ ১৭৩ ৩৩১

এই ভিডিওটি লিংকটিতে ক্লিক করুন আর শুনুন সিনথুলের নিজের মুখে কি বলে ও

সূত্র: ফেসবুক গ্রুপ হতে সংগৃীহত