ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

মোবইল অপারেটরদের নানা আপত্তি সত্ত্বেও সরকার সম্প্রতি কলড্রপ-এর কারণে গ্রাহকদের অর্থ অপচয় রোধের জন্য ১০ সেকেন্ড পালস্ চালু করতে বাধ্য করেছে। কিন্তু সরকার পালস্ চালু করতে বাধ্য করলেও মোবাইল কোম্পানীগুলো এ সুযোগে কলরেট ৫০% বাড়িয়ে দিয়েছে। যেমন আমার সংযোগ থেকে আমি ল্যান্ডফোনসহ যে কোন মোবাইলে ভ্যাটসহ ৭৮ পয়সা প্রতি মিনিটে কথা বলতে পারতাম যা বর্তমান বেড়ে দাড়িয়েছে ১ টাকা ১৭ পয়সা অর্থাৎ প্রতি মিনিটে ৩৯ পয়সা (৫০%) বেশী দিতে হচ্ছে। ফলে কলড্রপ রোধের মাধ্যমে অর্থ অপচয় রোধের কথা বলা হলেও বাস্তবে তা মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য হিত বিপরীত হয়েছে। তাছাড়া প্রথম দিকে প্রায়ই কলড্রপ হলেও বর্তমানে কলড্রপ প্রায় হয়না বললেই চলে। তাই গ্রাহক স্বার্থ রার নামে বিটিআরটি কার স্বার্থ রা করতে চাচ্ছে তা নিয়ে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। বিটিআরসি’র নিকট বিষয়টির ব্যাখ্যা দাবী করছি এবং অবিলম্বে কলরেট কমানোর কার্যকর ব্যবস্থা নিতে বিটিআরসি তথা টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।