ক্যাটেগরিঃ দিনলিপি

 

আমি ঢাকা মহানগর এর একজন বাসিন্দা তবে ছোট বেলা থেকে নয় এই কয়েকবছর যাবত । ঈদের সময় অবশ্য বাড়িতে যাওয়া হয় কোন কোন বার তবে এখানে মানে ঢাকাতেই এখন বেশি থাকি ঈদের এই সময়ে। ঈদ এ এলাকাতে প্রচন্ড আনন্দ হয় ঢাকাতেও হয় । তবে বিশেষ করে ঈদের দিন কোথাও বেড়ানোর উপায় থাকে না। কারন খুবই সহনীয় হয়ে যাওয়া বজ্য গুলো। রাস্তায় রাস্তায় শুধু রক্তের ছড়াছড়ি। এ যেন ভুতুরে শহর কোন।

আমি একজন হিন্দু হয়েও চাই সকলের সাথে ঈদের আনন্দে শরিক হতে কিন্তু এতো বেশি গরুময় হয়ে উঠে যে সেই ভাবে আর শরিক হতে পারিনা । এখানে বলে রাখি যে আমি জানি না হিন্দু ধর্মে কোথাও এই প্রাণিটি খাওয়া বিশেষভাবে নিষিদ্ধ আছে কিনা তবুও পূর্বপুরুষেরা যেহেতু খান নি তাই আমারো খাওয়া হয়ে উঠেনি আবশ্যক ধর্মের কিই বা জানি আমি । আমার অনেক বন্ধুকে দেখেছি গোপনে আমাকে ওটা খাওয়ানোর চেষ্টা করতে যখন ধরে ফেলেছি তখন মাফ চেয়েছে তাই হয়ত কোন সময় অজ্ঞাত অবস্থাতে খাওয়া হয়ে থাকলেও থাকতে পারে। আসলে এটা কিন্তু আমার ধর্মীয় অনুভূতিতে এক প্রকার আঘাত করা কিন্তু কেন জানি না আমার সেই সব বন্ধুরা এই কথাটা মেনে নিতে পারেনি।

আমরা হিন্দুরা কোন অনুষ্ঠান করার সময় চেষ্টা করি যেন তা অন্য কারো ক্ষতি না করে অথচ দেখুন আমার বন্ধু বেশে থাকা অনেকেই আমার ক্ষুদ্র অনুভূতিটাকে ছাড়তে নারাজ। জানি না আসলে এটা তে কোন উপকার হয় কিনা তাদের তবে এটুকু বুঝি যে মনে মনে তারা রাজ্য জয় করার আনন্দ পায়। আমি কিন্তু এটা বলছি না যে আমার সকল বন্ধুরা এমন করে মুষ্টিমেয় কিছু বন্ধু আছে যারা এরকম করে থাকে।

যাক ব্যাক্তিগত অনুভুতি নিয়ে লিখতে গিয়ে যা নিয়ে লিখতে বসেছি তাই যেন গুলিয়ে ফেলছি। এবার আসি ঈদের ছুটি নিয়ে ঈদের ছুটি মূলত শুরু হয়ে গেছে গত ১৫ তারিখ থেকে আমি নিজেও এখন ছুটি কাটাচ্ছি আর এই ছুটিটা শেষ হবে ২১ তারিখে । মানে ২২ তারিখ থেকে আবার অফিস করতে হবে আমাদেরকে । কিন্তু ২২ ও ২৩ তারিখ টা তে তেমন কোন কাজ হবে কিনা সন্দেহ আছে তারমানে পুরোপুরি কাজ শুরু হতে হতে ২৬ তারিখ হয়ে যাবে কারণ ২৪ ও ২৫ তারিখ তো ছুটি আছে ই তার মানে হচ্ছে এ কদিন সব কিছু বন্ধ শুধু ছুটি কাটানো আর আনন্দ করে ঘুরে বেড়ানো ।কিন্তু ঢাকাতে থেকে সবই ঠিক আছে শুধু রাস্তার দুর্গন্ধ আর ময়লা আবর্জনা ছাড়া । এ কদিন ঢাকা অনেক ফাকা থাকে। প্রতিবারের মতো এবার ও তাই থাকবে আসা করছি এবার তো ঈদের আগে অনেক বড় ছুটি পেয়েছে সবাই তাই বেশি ফাঁকা হওয়া উচিত বলে মনে করি কিন্তু গত কয়েক বছরে যেভাবে লোক বেড়েছে তাতে কতটা ফাঁকা হয় তাই দেখার বিষয় এখন ।

আমার এই পোস্টে যদি কেও কষ্ট পান আমায় ক্ষমা করবেন তবে আপনাদের কাছে একটা অনুরোধ আমার আর তা হল দয়া করে আমাদের কথা একটু ভাবুন নিজের অনুষ্ঠানের জন্য নিজে আনন্দ করার জন্য অন্যকে কষ্ট দিবেন না । আপনি পরিবেশ সুন্ধর রাখুন দেখবেন আপনার আনন্দ ও বেড়ে গেছে অনেকগুন।

ভাল থাকবেন সবাই । ঈদের শুভেচ্ছা রইল সবাইকে ।

ঈদ মোবারক ।