ক্যাটেগরিঃ প্রকৃতি-পরিবেশ

আগামী দিনের উষ্ণ পৃথিবীতে যেসব দেশগুলোর তাপমাত্রা অপেক্ষাকৃত কম থাকবে সেসব হচ্ছে- কানাডা,আইসল্যান্ড, গ্রীনল্যান্ড,নরওয়ে, সুইডেন, ফিনল্যান্ড, রাশিয়ার উত্তরাঞ্চল, ল্যাপল্যান্ড, অ্যান্টার্ক্টিকা মহাদেশ, নিউজিল্যান্ড এবং বিশেষ ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে ব্রিটেন। এই সব অঞ্চলের বরফ গলে যাওয়ায় মানুষ বসবাসের অনেক ভূমি পাওয়া যাবে। তাছাড়া চাষাবাদের উপযোগী অনেক জমি পাওয়া যাবে। এছাড়াও এসব অঞ্চলের মাটির নিচে জমে থাকা খনিজ এবং জ্বালানী সহজে আহরণ করা সম্ভব হবে। সমুদ্রের বরফ গলে যাওয়ায় জাহাজ চলাচলের জন্য নতুন জলপথ উন্মুক্ত হবে এই সব অঞ্চল দিয়ে। দেশ গুলোর মধ্যে সবচে বেশি লাভবান হবে কানাডা,আইসল্যান্ড এবং ডেনমার্ক (গ্রিনল্যান্ডের মালিক)।

উষ্ণায়নের জন্য আফ্রিকা, দক্ষিণ আমেরিকা,অষ্ট্রেলিয়া এবং এশিয়ার একটি বিশাল অংশ জুড়ে যখন বিরাজ করবে খরা, খাবার ও পানীয়ের অভাব এবং মহামারি – চরম রাজনৈতিক অরাজকতা তখন পৃথিবীর এই অঞ্চলের দেশগুলোতে উন্নতির নতুন জোয়ার দেখা দিবে। কিন্তু প্রশ্ন হলো এই সব দেশের মানুষগুলো বিশ্বের বাকী দেশগুলোর মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসবে কী না। এক কানাডাতেই অর্ধেক ভূমিহীন মানুষের আবাসনের ব্যবস্থা করা যায়। কিন্তু কানাডা কী তা করবে ? অ্যান্টার্কটিকা তো আগেই ভাগাভাগি হয়ে গেছে এবং কেউ তা না মানলে নতুন করে যুদ্ধ শুরু হবে।
বাংলাদেশ কী করবে?