ক্যাটেগরিঃ প্রকৃতি-পরিবেশ

রাত জাগা পাখি,
কিছুক্ষণ আর বাকি।
যারা ঘুমিয়ে আছে,
বলো জেগে উঠতে।
পৃথিবী কোথায় যাচ্ছে ,
আমরা কোথায় আছি।
একবার ও কী ভেবেছি,
কী করার আছে।
না, এটা আমার লেখা কোন কবিতা নয়। টরন্টো প্রবাসী বাংলাদেশি বাংগালি গায়ক আমিন চৌধুরীর ‘বাংলাদেশ’ নামের গানের শুরু হয়েছে এভাবে। বিশ্বের আসন্ন পরিবেশ বিপর্যয়ে অন্যতম সম্ভাব্য ক্ষতিগ্রস্ত দেশ বাংলাদেশের বিষয়টি অনলাইনে প্রচার করার জ ন্য গত বছর জানুয়ারি মাসে আমি SOSbangladesh নামে যে ইউটিউব চ্যানেল শুরু করেছিলাম তার থীম সংগীত খুঁজতে যেয়ে ইন্টারনেটেই পেয়ে যাই এই তরুণের এই গান, যা আমার উদ্দেশ্যের সাথে একদম মিলে গেছে। বাংলাদেশ নিয়ে অনেক সচেতন প্রবাসী-ই যে ভাবেন তার এ গানেই এ প্র মাণ পাওয়া যায়। কারণ প্রায় প্রতিটি প্রবাসী বাংলাদেশি বুকের ভেতর এক টুকরো বাংলাদেশ নিয়ে ঘুরে বেড়ান।

বিখ্যাত New Scientist পত্রিকার ২৩ অক্টোবর ২০১০ সংখ্যায় বলা হয়েছে, পরিবেশ বিপর্যয়ে সবচে ক্ষতিগ্রস্ত মহাদেশ হবে এশিয়া। Maplecroft নামে একটি ব্রিটিশ ঝুঁকি বিশ্লেষণী সংস্থা (Risk Analysis Firm) জলবায়ূ পরিবর্তনের কারণে ঝুঁকিপূর্ণ ( Climate Change Vulnerability Index) দেশের এক সূচক প্রকাশ করেছে। এতে বাংলাদেশ তালিকার শীর্ষে রয়েছে -এর বিশাল জনসংখ্যা, চরম গ্রামীণ দারিদ্র্য এবং বন্যার উঁচু ঝুঁকির কারণে। এতে আরো বলা হয়েছে , …it finds that the teeming plains of Asia are at greatest risk in the next 30 years.Ten of the 16 most vulnerable countries are in Asia।

এই সূচকে বাংলাদেশের পরেই সবচে ঝুঁকি পূর্ণ দেশের তালিকায় আ ছে ভারত -তার একশো কোটির বেশি জনসংখ্যার কারনে।অন্যান্য ঝুঁকি পুর্ণ দেশগুলো হলো-যথাক্রমে, নেপাল, ফিলিপাইনস,আফগানিস্তান, বার্মা,ক্যাম্বোডিয়া এবং পাকিস্তান। এতে ভবিষ্যতের এই পরিবেশ বিপর্যয় হতে বাঁচার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে এভাব,- Seeking to escape the worst effects of Climate change ? A comprehensive vulnerability index suggests you move to Scandinavia, Ireland or Iceland. অর্থাৎ পরিবেশ বিপর্যয় হতে বাঁচতে চাও ? তাহলে স্ক্যান্ডিনেভিয়া ( নরওয়ে, সুইডেন এবং ডেন মার্ক ), আয়ারল্যান্ড অথবা আইসল্যান্ড যাও।

নরওয়ের Telenor কোম্পানী বাংলাদেশে মোবাইল ফোনের ব্যবসা করে ( গ্রামীণ ফোন ) অভাবনীয় মুনাফা করেছে এবং এটা সম্ভব হয়েছে বাংলাদেশের বিশাল জনসংখ্যার কারনে। গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ডকটর মুহম্মদ ইউনুস কী একটা উদ্যোগ নিতে পারেন না নরওয়ে , সুইডেন এবং বাংলাদেশ সরকারের মধ্যে এমন একটা চুক্তি করতে যাতে ভবিষ্যতে ( বা এখন হতেই ধীরে ধীরে ) ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চলের মানুষদের কে ওসব দেশে মাইগ্রেশনের ব্যবস্থা করা যায় ?