ক্যাটেগরিঃ নাগরিক সমস্যা

বাংলাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশই যানজটের ছোবলে নষ্ট করছে বহু কর্মঘণ্টা, শারীরিক, মানসিক এবং আর্থিক ক্ষতি সাধন হচ্ছে। যানজট নিরসনে বহু পরিকল্পনা, কৌশল প্রয়োগ এবং ব্যয়বহুল এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে এবং মেট্রো রেলের মত প্রকল্প গ্রহণ করেছে। তারপরও বিশ্বের উন্নত দেশগুলোতে এখনও যানজট সমাধানে অপূর্ণতা রয়েছে। যে কারনে চীনসহ অন্যান্য দেশ যানজটের নতুন সমাধানের খোঁজে ব্যস্ত।

এছাড়া বিভিন্ন গবেষক ও নগর পরিকল্পনাবিদের মতে, রাজধানীর যে পরিমাণ সড়কের প্রয়োজন সে পরিমাণ সড়ক নেই। ফলে আরও রাজধানীতে সড়ক নির্মাণের প্রয়োজন দেখানো হচ্ছে।

আমার মতে, আয়তনের তুলনায় রাজধানীতে এমনিতেই সড়কের পরিমাণ বেশি। যে কারণে নতুন অপরিকল্পিত সড়ক নির্মাণ আরও রাজধানীর যানজট বাড়িয়ে তুলবে। যেমন একটি নতুন সড়ক হল বিজয় স্মরণী লিংক রোড। যে কারণে এখানে আরেকটি সংযোগ সড়ক হওয়ায় যানজটের পরিমাণ পূর্বের চেয়ে অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। যে কারণে সিগন্যালে অপেক্ষার সময় বেড়ে গেছে। পূর্বে এখানে মহাখালী থেকে সরাসরি গাড়ী গুলো ফার্মগেট ঢুকতে পারতো। এখন লিংক রোডটির নতুন সংযোগের কারণে চতুর্দিকের গাড়ী গুলোকে আরও যানজটে ফেলে দিচ্ছে। তাই রাজধানীতে নতুন সড়ক নির্মাণ না করে অপ্রশস্ত সড়ক প্রশস্ত করণ জরুরী। যদি বিশেষজ্ঞদের মতে মনে হয় আরও নতুন সংযোগ একটি সড়কে চাপ কমাবে, তবে এটাও ধরে নিতে হবে আরেকটি সড়কের জন্য এই নতুন সড়কটি চাপ সৃষ্টি করবে, ফলে যানজট বেড়ে যাওয়ার আশংকা বিদ্যমান।

অপরদিকে বলতে পারি প্রত্যেকটি সড়কে গাড়ী আনলিমিটেড চলতে পারবে যদি সড়ক প্রকৃতভাবে ব্যবহার করা যায়। আমার দীর্ঘ গবেষণায় বলতে পারি বাংলাদেশসহ বিশ্বের বেশিরভাগ বিভিন্ন সড়কই বিভিন্ন সময়ে অব্যবহৃত যারা সিগন্যাল পয়েন্ট একটিভ রেখেছে। জানামতে বিশ্বের সকল দেশেই সিগন্যাল পদ্ধতি ব্যবহার করে। ফলে সিগন্যাল পদ্ধতি প্রয়োগে এক পাশের গাড়িকে সুযোগ দিতে গিয়ে আরেক পাশের গাড়ী গুলো সড়ক ব্যবহার করতে পারে না প্রতি মুহূর্তেই। সিগন্যাল পদ্ধতি যে শহর ব্যবহার করে সে শহর অবশ্যই পূর্ণাঙ্গভাবে প্রত্যেকটি সড়ক ব্যবহার করতে পারে না। যেখানে সড়ক অব্যবহৃত থাকে সেখানে সড়ক সংকটের তো প্রশ্নই আসে না। প্রকৃতভাবে সড়ক ব্যবহার করতে পারলে যানজট থাকবে না।

দেশ বিদেশের কয়েকটি অব্যবহৃত সড়কের ছবি উপস্থাপন করা হলো ঃ-

১। খামারবাড়ী, ফার্মগেট সিগন্যাল পয়েন্ট- সঠিক কৌশল এবং পরিকল্পনা প্রয়োগ না করায় সিগন্যাল পয়েন্টের কারণে প্রতিনিয়ত একেক সময় একেক সড়ক অব্যবহৃত থাকছে, ফার্মগেট সিগন্যাল পয়েন্টের কারণে এক সময় খামার বাড়ী এবং মানিক মিয়া এভিনিউতে তীব্র যানজট সৃষ্টি হচ্ছে এবং আবার কাওরানবাজার থেকে ফার্মগেট সিগন্যাল পয়েন্টমুখী গাড়ী গুলো প্রায়সময়ই যানজট লেগেই থাকছে।

২। আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়া, শান্তামনিকা এলাকায় দেখা যাচ্ছে পর্যাপ্ত সড়ক থাকা সত্ত্বেও যানজট ? এখানে তো রিক্সা নেই, হকার নেই, গাড়ি পার্কিং স্থান সংকট কোনটিই নেই, তারপরও যানজট! উন্নত দেশ হলেও সঠিক পরিকল্পনার অভাবেই এই পরিস্থিতি।

৩। যানজট নিরসনে বিজয় স্মরণী লিংক রোড নির্মাণ করা হলেও নতুন সড়কটিতে যানজট বিদ্যমান, ছবিটি দেখে একটু ভাবুন একপাশে পর্যাপ্ত পরিমাণে সড়ক থাকলেও আরেকটি সড়কে যানজট, তাও বিজয়স্মরণী সিগন্যাল পয়েন্টের ছোবলে, সঠিক পরিকল্পনার অভাবেই নতুন সড়ক নির্মাণ করেও রেহাই পাওয়া যায়নি। এখানে বিশেষজ্ঞদের সড়ক সংকট দেখানো বিষয়টি আমার কাছে মনে হচ্ছে না। আমার মতে বর্তমানে আমাদের যতটুকু সড়ক রয়েছে তার সমাধান জরুরী এবং তা সম্ভব।

আমার গবেষণার কয়েকটি ভিডিও দেওয়া হলো ঃ-