ক্যাটেগরিঃ প্রশাসনিক

 

অবশেষে দীর্ঘদিন পর ২০১১ সালে গত “ফ্লুসি ২০০৭” এ জমা দেয়া ইতালির অনেক ভিসা বের হয়েছে। তাই বাংলাদেশের ইতালি ভিসা এন্ড লিগেলাইজেশন সেন্টার (VFS Global) এ লোকজনদের লম্বা লাইন। এ লাইনের অনেকেই ৫/৭ বার লাইনে দাড়িয়েছে, কারন তারা জানেনা কোন দিন Visa Application জমা দিতে পারবে।

it
VFS Global এর নিয়ম অনুযায়ী প্রথমে আসলে আবেদনকারীদের Visa Application জমা নেয় না। শুধু পাসপোর্ট, নোলাস্তা(ভিসা) এর ফটোকপি এবং ফোন নাম্বার জমা দিয়ে অপেক্ষায় থাকতে হয় ফোনের। যে কোন সময় ফোন আসতে পারে। কিন্তু কোন কারনে সে ব্যক্তি ফোনের দিন মিস করলে শুরু হয় তার বিপদ। আবার কোন দিন ফোন পাবে তার কোন নিশ্চয়তা থাকে না। শুরু হয় কিছুদিন পর পর লাইনে দাঁড়ানো, আর ভেতরে গেলে Visa Application জমা না নিয়ে ফিরিয়ে দেয়া। উল্লেখ্য, Visa Application জমাদানকারীর ঐ দিনের “ফোন লিষ্টে” নাম থাকতে হবে।

যে কারনে এ সমস্যায় পড়তে হয়।

“১. VFS Global থেকে ফোন দেওয়ার সময় মোবাইলে নেটওয়ার্ক/ চার্জ না থাকা বা যে কোন কারনে মোবাইল বন্ধ থাকলে।
২. ফোন পাওয়ার পরেও কোন সমস্যার কারনে নির্দিষ্ট দিনে না এসে পরে আসলে।
৩. পাসপোর্ট বা কোন ডকুমেন্ট এ ভুল থাকলে তা পুনরায় সংশোধন করে জমা দিলে ”
* VFS Global এর Helpline( +88-02 9895742) এ দেয়া এক মাত্র ফোন নাম্বারে কল ঢোকে না বা ঢোকলেও এ ব্যপারে কিছু জানা যায় না।
* তাদের ওয়েব সাইটে (www.vfsglobal-it-bd.com) ও ভিসা প্রার্থীদের কোন তালিকা প্রকাশ করা হয় না।

“কেউ কেউ এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে দালালের খপ্পরে পড়ছে। দালালরা বলছে তাদের সাথে অফিসের ভেতরের লোকের যোগাযোগ আছে যারা টাকার বিনিময়ে তারাতারি ফোন পেতে সহযোগীতা করবে ।”

এমতাবস্থায় ইতালি ভিসা প্রার্থীদের দাবী এ রকম হয়রানি বন্ধ করা হোক।