ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

 

এক বুক বেদনা নিয়ে আজ এ লেখা লিখতে বসেছি। আমাদের প্রিয় মাশরাফির কান্না আমাকে খুব মর্মাহত করেছে। আমি ও আর চোখের পানি ধরে রাখতে পারিনি। দু ‘চোখ বেয়ে আমারও কান্না গড়িয়ে পড়েছে। আর সবার মত আমারও আশা ছিল মাশরাফিকে দলে নেওয়া হবে। মাশরাফির যে অবস্থা তাতে আর ১৫ দিনের মধ্যে মাশরাফি পূর্ণদ্দোমে বল করতে পারবে। আর বিশ্বকাপের এখনো এক মাস বাকি। সে বিশ্বকাপে সহজেই খেলতে পারত। যেখানে অস্ট্রেলিয়াতে হাসিরকে অপারেশন সত্বেও নেয়া হয়েছে। ইন্ডিয়া যেখানে চার জন ইনজুরড প্লেয়ার রেখেছে সেখানে ১৫ জনের দলে মাশরাফিকে সহজে নেয়া যেত। তারপর যদি খেলতে না পারত তাহলে আবার রিপ্লেসমেন্ট করা যেত । সবচাইতে অবাক হই নির্বাচকদের অদূরদর্শিতা দেখে..!