ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

 

আজ বাদে কাল গর্বের ১৬ই ডিসেম্বর। আর তার পরদিন ঠিক ১৭ তারিখেই! ভাবতেই লজ্জ্যা লাগছে। ব্যপারটা যদি সত্য হয়!! হুমম তকি উসমানী একজন বড় মৌলভি, উনি বয়ান রাখবেন এই স্বাধীনতার মাসে তাও ১৬ তারিক দিনটা শেষ না হতেই ১৭ তারিখে, এই স্বাধীন বাংলার রাজধানি ঢাকায়। এবার এই তকি উসমানীর পরিচয় সম্পর্কে একটু আসা যাক উনি একজন পাকিস্তানি এবং তিনি যেই মাদ্রাসার প্রিসিপাল সেই দারুল উলুম করাচীতে ১৯৭১ এ পূর্ব পাকিস্তানি হিন্দুদের কতল করার জন্যে মুজাহিদ ট্রেনিং এর এন্তেজাম করা হয়েছিল। এই ব্যপারটি একটু খোজ নেয়া যেতে পারে? সাংবাদিক ভাইরা কি এবারের ১৬ ডিসেম্বরএ একটু খোজ নিয়ে দেখবেন কোন আলেম ওলামা এই বিশেষ লোকটিকে আমন্ত্রণ করলেন??? তকি উসমানীর ভাই রফি উসমানী তার এক লিখনিতে বয়ান করেন ‘যদি পাকিস্তান আর্মি সেই দিন(১৬ ডিসেম্বর) কাপুরুষের মত আত্মসমর্পণ না করতো তাহলে তারা দারুল উলুম করাচীতে ট্রেনিংরত মুজাহিদদের পরবর্তী সময়ে ইসলাম রক্ষায় পূর্ব পাকিস্তানে পাঠাতে পারতেন। আমরা কার কাছে আশা করতে পারি যিনি আমাদের জানাবেন ১৭ ডিসেম্বরের এই বিশেষ অতিথিটির সাক্ষাতকার নিয়ে যে আমাদের স্বাধীনতা সম্পর্কে তার তফসিরটি কি বা কেমন। সেও কি তার ভাইয়ের মতই মুজাহিদ!?