ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

 

আমরা কিশোরগঞ্জ জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলার এম.ডি.পি আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র। বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা হয়েছিল ১৯৯৩ সালে , কিন্তু ১৯ বছর পেরিয়ে গেলে ও আজও মেলেনি মাধ্যমিকের পূর্ণ এমপিওভুক্তকরন। প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে প্রতিবছর এ স্কুলের শিক্ষার্থীরা আশপাশের স্কুলের চেয়ে খুব ভালো রেজাল্ট করে আসছে। উপজেলার মধ্যে একবার প্রথম স্থানসহ প্রতিবারই পাঁচের ভেতর রেজাল্টের দিক থেকে এ স্কুলের নাম আসে। অথচ এ স্কুলটির একাডেমিক ভবন নেই বললেই চলে, প্রতিবছর ঝড়ে স্কুলটি অবস্থা আরো জর্জরিত হয়ে পড়ে, এ অবস্থায় শিক্ষার্থীরা ক্লাস করতে পারে না। প্রতিবছর অন্তত ১ মাস বন্ধ থাকে শুধু ঝড়ে ভাঙনের কারনে। তারপর নেই পর্যাপ্ত শিক্ষক। একজন বি.এস.সি শিক্ষক পদার্থ,রসায়ন,গণিত,উচ্চতর গণিত এই সবগুলো ক্লাস নেয়। অথচ এ স্কুলের উপর নির্ভর করে আছে আশপাশের তিনটি গ্রামের দরিদ্র মানুষের ছেলে মেয়ের ভবিষৎ। শিক্ষামন্ত্রী সমীপে বিনীত অনুরুধ এই যে, স্কুলটির মাধ্যমিকের পূর্ণ এমপিওভুক্তকরন করে আমাদের অভিভাবকত্ব গ্রহন করে।