ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 

ইউনিপেটুইউর শুরু থেকে একটা ও লিগাল নিউজ কেঊ দিতে পারে না। আমি বিডি নিউজকে বলব আমার পোস্ট গুলু ভাল ভাবে দেখে তারপর একটা ধারাবাহিক প্রতিবেদন তৈরি করার অনুরোধ রইল।
ইউনিপেটুইউ বিগত জানুয়ারী ১০ তারিখে ক্লোজ হবার পর কোম্পানী কথিত টিএসপি উদ্যোগে এম এ তাহের এর উদ্যোগে অনেক বড় মানব বন্ধন হয় । তাতে করে মিডিয়া ইউনিপেটুইউর এর বিপক্ষে লিখে যায় তাতে করে লাভ হল সরকারের মিডিয়া এর জন্য পুরোটাই দাই। ইউনিপেটুইউর এর টাকা কী কখনো গ্রাহক পাবে ???

অফিস এর নিচে আসা হাজার হাজার বিনিয়োগকারীর মন কেড়ে নেয় মিঠু নামের এক লিডার তিনি আবার কোম্পানীর (এমডি) মুনতাসির সহ সবার সাথে যোগাযোগ রাখেন ,এবং তিনি 50 কোটি টাকার মত গ্রাহক দের দেবেন বলে স্টেপ বাই স্টেপ এই টাকা নেন । একবার অফিস এর নিচে তিনি গ্রাহকদের টাকা এই ভাবে নিচ্ছেন বলে অনেক মারধর ও করে গ্রাহকরা । এর পর তিনি তার ফয়দা লুটার পর চলে জন রেবনেক্ষ্ক্ষ নামের আরেক কোম্পানীতে । তিনি মিডিয়ার সামনে আন্দোলন এ নামছেন কারণ যাতে কেউ ধরতে না পারে??

এরপর গ্রাহকদের পক্ষ থেকে সত্যিকারে একটি আন্দোলন শুরু হয় সেটা শুরু করেন ইয়ং একটা গ্রুপ এতে লীড দেন শরীফ আহমেদ ভইয়া এবং বনী এদের কোম্পানীর ম্যানেজমেন্ট বিভিন্ন সময় দিয়া আন্দোলন বন্ধ করে রাখে কিন্তু তারা গ্রাহকদের জন্য কিছু করতে চাইলেন । এদের ব্যবহার করে অনেক মিঠু টাকা হাতিয়ে নেয়া তথ্য মুনতাসির এর নিকট আসে ।

এখন শুরু হচ্ছে প্রতারনার উপর নিউ প্রতারণা :
মহম্মদপুর থানার (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম এবং এসি মোহাম্মদপুর অঞ্চলের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) গোলাম মোস্তফা তারা নিজেদের মত করে মামলা নিচ্ছেন । এদিকে মনজুরুল মোর্শেদ 01711587564 একটি সংঘটন তৈরি করছেন তারা ও বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে এমডি এবং ম্যানেজমেন্ট এর কাছ থেকে অনেক টাকা নিয়াছেন গ্রাহকদের দেবে এই বলে । তিনি আসলে কত টাকার বিনিয়োগ করি সেটা কী কেব জানেন ? বিভিন্ন ইনভেস্টর এর নামেও মামলা দিচ্ছেন যাতে তারা থানার আসে পাশে না আসে পারেন । এবং তারা তাদের কাস থেকে টাকা দাবি করছেন।
তাকে সহযোগিতা করেন ১০ জন । সত্যিকার অর্থে তারা ও কোনও দালাল চক্র ছাড়া কিছুই না ।

সব গ্রাহক তাদের নিজের টাকা তখন ফেরত পাবে যখন জব্দকৃত বাংক অ্যাকাউন্ট খুলে দেবে তাছাড়া তাদের কথ কেব প্রতারিত হবেন না । মহম্মদপুর থানার (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম এবং এসি মোহাম্মদপুর অঞ্চলের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) গোলাম মোস্তফা ওনার যেন ম্যানেজমেন্ট দেখে শুনে অন্য গ্রাহক দের হয়রানি না করেন । একটা প্রশ্ন :মঞ্জুর তার টিম এ যদি ১০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করান তবে তিনি কমিশন বাবদ নিছেন ২ লাখ টাকা সে টাকা তিনি যেন ফেরত দেন এভাবে এই সমস্যা সমাধান করার জন্য ৭ লক্ষ গ্রাহক এর উপস্থিত হতে হবে তাহলে উক্ত কোম্পানী সমস্যা সমাধান হবে ।