ক্যাটেগরিঃ জানা-অজানা

 

ছোটবেলা থেকেই বিজ্ঞান নিয়ে আগ্রহ অনেক বেশী। সেই আগ্রহ থেকেই অজানা অনেক তথ্যই জেনেছি বইপত্র এবং অনলাইন ঘাটাঘাটি করে। বলা যায় এটা আমার নেশা। ভাবছি জানা-অজানা তথ্যগুলো পর্ব করে প্রকাশ করলে মন্দ হবে না। শুরু করলাম মশা দিয়ে… ফিজিক্স, বায়োলজি, কেমিস্ট্রি সবই থাকবে। অ্যামিবা থেকে এলিয়েন, প্রোটন থেকে পারমানবিক বোমা সবই থাকবে আলাদা আলাদা পর্বে।
mosquito-anatomy
মশা একটা যন্ত্রণাদায়ক প্রাণী। মনে হয়, জন্মই হয়েছে প্রাণীকুলকে যন্ত্রণা দিতে। কিন্তু মশা কি শুধুই রক্ত পান করে?

না, শুধুমাত্র স্ত্রী মশা মানে মশকী মানুষ বা যেকোন স্তন্যপায়ী প্রাণীর রক্ত পান করে। তবে বেঁচে থাকার জন্য না। তাহলে কেন?

মশার নিষেক, ডিম তৈরী ইত্যাদি বংশগতিয় কার্যক্রম করার জন্য মশার শক্তির প্রয়োজন হয়। এই শক্তি মশা স্তন্যপায়ী প্রানীর রক্ত থেকে সংগ্রহ করে। আর স্ত্রী মশার গর্ভাশয়ের পরিবেশ ঠিক রাখতেও তাজা রক্তের প্রয়োজন পড়ে। মা মশাদের পেটে যখন ডিম থাকে, তখন সেই ডিমগুলোকে বাঁচিয়ে রাখতে প্রাণীদের তাজা রক্ত লাগে। এই রক্ত ঠিকমতো সরবরাহ করতে না পারলে ডিমগুলো নষ্ট হয়ে যায়। এজন্যই তাই মা মশারা বাধ্য হয়েই প্রাণীদের তাজা তাজা রক্ত ওদের সিরিঞ্জের মতো হুল দিয়ে সরাসরি ডিমের কাছে পাঠিয়ে দেয়।46_mosquito_en

কিন্তু রক্ত কেন? কারণ ডিম নিষেকের থ্রিওনিন নামক অত্যাবশ্যকীয় অ্যাামাইনো অ্যাসিডের প্রয়োজন পড়ে, এগুলো একমাত্র স্তন্যপায়ী প্রাণীর তাজা রক্তে পাওয়া যায়। এগুলো নিউট্রিয়েন্ট সোর্স হিসেবেও কাজ কর। সবসময় চাইলেই তাজা রক্ত পাওয়া যায় না। তাই এককামড়ে মশা চেষ্টা করে সর্বোচ্চ পরিমাণ রক্ত সংগ্রহ করে রাখতে।

এখন প্রশ্ন উঠতে পারে, মশারা তাহলে কী খায়?
মশারা সাধারণত ফুলের রেণু খেয়ে বেঁচে থাকে। ফুলের রেণুর সুক্রোজ তাদের প্রধান খাদ্য। কিছু মশা পঁচা জল থেকে খাদ্যরস গ্রহণ করে।

বিজ্ঞানীরা পরীক্ষা করে দেখেছেন স্ত্রী অ্যানোফিলিস মশা ছেলেদের চেয়ে মেয়েদের বেশি পছন্দ করে। কেন?

CYCLE01পুরুষ অপেক্ষা মেয়েদের ঘামের সঙ্গে বের হয়ে আসে কয়েক ধরনের অ্যামাইনো অ্যাসিড একটু বেশি পরিমাণে। মেয়েদের চামড়ায় ওই কয়েকটি অ্যামিনো অ্যাসিডের আধিক্য বেশি থাকায় মশকীর একধরণের নেশার সৃষ্টি হয়। ফলে মেয়েদের তুলনামুলকভাবেমশার কামড় বেশি খেতে হয়। তাছাড়া মেয়েদের হরমন এবং অক্সিটোসিন ঘামের ভেতর দিয়ে বেশি বেরিয়ে আসে। এ হরমোনের জন্যও মশা মেয়েদের বেশি পছন্দ করে। ফলে মেয়েরা মশার কামড়ও বেশি খায়।

এছাড়া আরও অনেক কিছুই আছে। প্রশ্ন করলে উত্তর দিবো যদি জানা থাকে।

পরের পর্বে থাকছে- হোমিওপ্যাথী ঔষুধ আবিস্কারের মজার কাহিনী।