ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

জাতীয় নির্বাচনের ঠিক এক বছর আগে, খালেদা জিয়ার ভারত সফর শেষে, ৭ নভেম্বরকে সামনে রেখে ৭১ এর রাজাকার বাহিনী হঠাৎ বেপরোয়া উঠলো কেন? হঠাৎ করে তারা এত শক্তি কোথায় পেল? মুসলমানের লেভাস পড়ে, ইসলাম ধর্মের দোয়ায় দিয়ে তারা ৭১ এ এদেশের লাখ লাখ নিরিহ মানুষ হত্যা করে, লক্ষাদিক মা-বোনের ইজ্জত লুন্ঠন করেও কান্ত হননি। ৭ই নভেম্বর জনতার বিপ্লবের নামে হত্যা করেছিল অনেক বীর মুক্তিযোদ্ধাদের। সেই রাজাকার বাহিনী এদেশে আবারো ৭১ ও ৭ই নভেম্বর সৃষ্টি করার কু-উদ্দেশ্যে গতকাল ঢাকাসহ প্রায় ১৪/১৫টি জেলায় একযোগে জনগণের জানমালের ক্ষতি ও গাড়ীতে অগ্নি সংযোগ করে নারকীয় তা। এই হামলাগুলোতে সাধারণ জনগণ প্রতিরোধ গড়ে না তুললেও দেশের আইন শৃংখলা বাহিনীর দক্ষ প্রতিরোধের প্রতিরোধের মুখে রাজাকার বাহিনীর কু-উদ্দেশ্য ভেস্তে যায়।

আজ আবারো রংপুর জেলায় পুনরায় এই দেশের মাটিতে নেমে জনগণের জান-মালের ক্ষতি ব্যাপক ক্ষতি করতে থাকে। বীর সাহসী রংপুর বাসী ঝাঁপিয়ে পড়ে রাজাকার বাহিনী প্রতিরোধে। তাই রংপুরবাসীদেরকে সাবাশ না জানিয়ে পারছি না বলে আমার এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। রংপুরবাসীদের মতো যদি দেশের সকল জেলায় এভাবে রাজাকার বাহিনী ঠেকানোর জন্য দেশের মুক্তিকামী মানুষ ঝাঁপিয়ে পড়ে তাহলে এই রাজাকার বাহিনী এই দেশে আর মাথা ছাড়া দিয়ে উঠতে পারবে না। এখনই সময় রংপুরবাসীর সাহসিকতায় অনুপ্রাণিত ও সাহসী হয়ে রাজাকার বাহিনী প্রতিরোধে এগিয়ে আসার। রংপুরবাসী সাবাশ ! সাবাশ !! সাবাশ !!!