ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

দেশের প্রধান বিরোধী শরীক দলগুলোকে ১২ মার্চ ঢাকা চলো কর্মসূচী ঘোষণা করেছেন পক্ষান্তরে সরকার সমমনা ১৪ দলকে নিয়ে ৭ মার্চ জনতার ঢল দেখানোর প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন। ইতিমধ্যে উভয়ে প্রস্তুত নিজ নিজ শক্তি প্রদর্শন করার জন্য। কার স্বার্থে কিসের স্বার্থে এই শক্তি পরীক্ষা? আজকের খবরে জানতে পারলাম নারায়নগঞ্জ বিএনপি ঢাকা চলো কর্মসূচীর জন্য ৫০ লাখ টাকা বাজেট করেছে। যদি এভাবে প্রতি জেলায় বাজেট হয় তাহলে ৬৪ জেলায় ৩২ কোটি টাকা বাজেট করা হয়েছে, তার চেয়ে বৈ বেশী হবে কম হবে না। সেই হিসাবে সরকারী দল তো আরও বেশী করবে কমপক্ষে দ্বিগুণ অর্থাৎ ৬৪ কোটি টাকা। যে দেশে অধিকাংশ মানুষ দরিদ্র খেয়ে না খেয়ে দিন কাটাতে হয় সেই দেশের সরকার আর বিরোধী দল কোটি টাকা খরচ করে শক্তি পরীক্ষা করছেন। বর্তমান দেশে অধিকাংশ যুবক বেকার অনেক ডিগ্রী নিয়ে একটা চাকরীর আশায় ধারে ধারে ঘুরতে ঘুরতে জোতার তলা খসে পড়ে গেছে। সেলাই করার পয়সা নেই, পকেট খরচের টাকা নেই। পিতা বা বড় ভাইয়ের কাছে খরচের টাকা চাইতে গেলে শুনতে বকা, বলে তোকে এত পড়া লেখা করাইছি এখন আমাদের কামায় খাওয়াবি তা না আবার তোর পকেট খরচের টাকা দেব আমরা? হতাশা আর অপমানে যুব সমাজ পরিচালিত হয় বিপথে আর এই সমস্ত যুবকদের ব্যবহার করে আমাদের মহামান্য রাজনীতিবিদ মহোদয়গণ। এই রকম কিছু যুবক দিয়ে আপনারা ঢাকা চলো আর জনতার ঢল শক্তি পরীক্ষায় পাস করলেন। কিন্তু আসল পরীক্ষায় পাস করার নিশ্চয়তা এই জনতার ঢল বা ঢাকা চলো কর্মসূচীতে পাবেন না। আসল পরীক্ষায় পাস করতে হলে যুব সমাজের স্বার্থে তথা দেশের স্বার্থে পরীক্ষা দিতে হবে। দেশের কোটি কোটি টাকা খরচ করে আপনার আভাবে শক্তি পরীক্ষার প্রতিযোগিতা না করে এই টাকা দিয়ে হাজারো বেকার যুব সমাজের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করুন।