ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা, ফিচার পোস্ট আর্কাইভ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক-রুমানার স্বামী পাষণ্ড হাসান সাঈদের মা-বাবা যেহেতু বিদেশে মানে আমেরিকা থাকে। তাই আমার সন্দেহ সে সেখানে বা অন্য কোন দেশে পালিয়ে যেতে পারে। পুলিশ ইচ্ছা করলে আসামীকে যে কোন সময়ই গ্রেফতার করতে পারে, কিন্তু আমার মনে হয় পুলিশ তাকে আমেরিকা বা অন্য কোন দেশে পালিয়ে যেতে সুযোগ বা সময় দিচ্ছে। এটা যদি হয়, তাহলে তা হবে জাতীর জন্য খুবই লজ্জাজনক।

একে (হাসান সাইদ) ধরিয়ে দিন

তাই সরকার তথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নিকট আমার আকুল আবেদন অনুগ্রহ পূর্বক ঐ ঘাতক, নির্যাতনকারী জানোয়ার রূপী স্বামী হাসান সাঈদকে যত দ্রুত সম্ভব গ্রেফতার করে দ্রুত বিচার ট্রাইবুন্যালের মাধ্যমে তার কঠিন থেকে কঠিনতর সাজার ব্যবস্থা করা হোক। তা নাহলে ওর দেখাদেখি অন্য কোন মানুষরূপী স্বামীও ওর মত পশুরূপী স্বামী হতে পারে। আমরা তা আর চাইনা।

Prof. Rumana in Hospital

তাই বর্ডারসহ সকল স্থানে রেড এলার্ট্ দেয়া হোক, দেশের সর্বত্র ওর ছবি পত্রিকার মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া হোক। এটা আমার ও সারা দেশবাসীর দাবী। দয়া করে আপনারা সারা দিন। প্লিজ। আর যেন কোন মাকে, আর যেন কোন স্ত্রীকে আর যেন কোন কন্যাকে এভাবে পশুর অত্যাচারের স্বীকার হতে না হয়।

এই ভিডিওটি দেখুন:

নরপিচাশ সাইদকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে ঢাবি শিক্ষকেরা- এখানে ক্লিক করুন বিস্তারিত সংবাদের জন্য

ভাল লাগল হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ স্ব-প্রনোদিত হয়ে ০৩ কর্মকর্তাকে আদালতে তলব করেছে। দেখুন পুরো খবর এখানে

সর্বশেষ: অবশেষে রুমানার পাষন্ড স্বামী গ্রেফতার বিস্তারিত এখানে ক্লিক করুন

***
ফিচার ছবি: এটিএন নিউজ এর ইউ-টিউব ভিডিও থেকে নেয়া