ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

একজন চাকুরীজীবি হিসাবে একটা হরতাল পেলে আমার খুব আনন্দ হওয়ার কথা ছিল। সত্যি বলতে কিছু কিছু হরতালের দিনে কাজের খুব চাপ থাকলে আমাকে অফিসে আসতে হতো, এবং খুব মন খারাপ হতো। কিন্তু এই প্রথম একটি হরতাল আমার ভিতর প্রতিবাদের আগুন জ্বালিয়ে দিচ্ছে। কোন কোন হরতালের দিনে হয়তো দেরি করে অফিসে আসতাম। আবার বের হয়ে যেতাম খুব তাড়াতাড়ি। কিন্তু আজ আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, কাল আমি অফিস টাইম এই আসব, আর সারাদিন অফিস করব। আর এটা করবো শুধু মাত্র এই হরতালের প্রতিবাদ করেই। আমাদের মত পিছিয়ে পড়া গণতান্ত্রিক দেশগুলোতে এখনো হরতালকে প্রতিবাদের প্রধান হাতিয়ার হিসাবে মনে করা হয়। যদিও সভ্যতার দৃষ্টিতে হরতাল কোন প্রতিবাদের ভাষা হতে পারে না। কারণ একটা হরতাল আমাদের অনেক পিছিয়ে দেয়। তাই আমি হরতালকে সমর্থন করিনা কখনো। তারপর আবার সেটা যদি হয় এমন একটি দলের ডাকা, যারা এই দেশটার জন্মই চায়নি। কিন্তু একটি স্বাধীন দেশের সবটুকু সবগুলো সুযোগ হাতিয়ে নিচ্ছে পুরোটাই। আবার এর পাশাপাশি খুব বেশি করে সুযোগ গুলোর অপব্যবহার করছে খুব নির্মম ভাবে। যেটা আমাদের জন্য খুবই লজ্জাজনক। তাই আমি আমার অবস্থান থেকে এই ন্যাক্কারজনক হরতাল এর প্রতিবাদ করছি। আপনি করছেন তো???