ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

আমাদের প্রতিবেশী দেশের কংগ্রেস দলের সভানেত্রী আমাদের দেশে অটিজমের এক সম্মেলনে আমাদের দেশে এসেছেন। আমাদের এ গরিব দেশে তার পদধূলি আমাদেরকে আনন্দিত করেছে সত্যই। পুলকিত বোধ করছি তার উপস্থিতিকে। বাংলাদেশের স্বাধীনতায় যার সহায়তার কথা জাতি কখনও ভুলতে পারেনা। যার জন্য দেওয়া হয়েছে রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা। তাকে আবারও স্বাগত জানাই আমাদের এ ছোট্ট কুটিরে।

আমরা আশা করি এ নেত্রীর শুভাগমন দুদেশে অনেক দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে সমঝোতা হবে। যা দুদেশের জন্য মঙ্গলকর। কিন্তু এ নেত্রী আমাদের দেশে আসার সময় নিজ দেশ থেকে এনেছেন নিজস্ব নিরাপত্তা সংস্থা। অবশ্যই নিজস্ব নিরাপত্তা সংস্থার দরকার আছে। তাকে বঙ্গভবনে সংবর্ধনা দেওয়ার জন্য দাওয়াত দেওয়া হয়েছে ৭০০ জন অতিথিকে। আর কি কোন লোক ছিলনা দেশে? আরও সবাইকে দাওয়াত দিত। আমাদের দেশ একটি মধ্যবিত্ত দেশ। নিজেদের চাহিদা মেটাতে সরকার হিমশিম খায়। সেখানে এক সরকার প্রধানকে সংবর্ধনা দিতে যে টাকা ব্যয় করা হয়েছে তা আশা করি সাত হাজার গরীব লোকের একবেলা ভাল ভাবে চলে যেত। বেঁচে থাকত আমার দেশের লোকেরা। আশা করি সরকার এ সকল বিষয় গুলোর দিকে নজর দিবেন।