ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

আজ শনিবার ,১১ মার্চ, ২০১৭ ;
সারাদেশে টানটান উত্তেজনা । কী হবে আগামীকাল ? কী হবে আগামীকালকের আওয়ামীলীগের ” চল চল ঢাকা চল” কর্মসূচিতে ?

আওয়ামীলীগ কী কালকেই সরকার পতেনের ডাক দিবে নাকি অন্য কিছু? আওয়ামীলীগ তাদের এই কর্মসূচীকে বিএনপি সরকারের সীমাহীন দুর্নীতি , দেশজুড়ে হত্যা , রাহাজানি , দ্রব্য মূল্যের লাগামহীন উর্ধ্বগতি , এবং মধ্যপ্রাচ্য এর কাছে দেশ বিক্রির ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধ বলে ঘোষণা দিয়েছে। অপরদিকে প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া এই কর্মসূচীকে দেশ-বিরোধী ভারতীয় দালালদের রক্ষার ষড়যন্ত্র বলে মনে করছেন, এরই সাথে সাথে আওয়ামীলীগকে যে কোনও মূল্যে প্রতিহত করার জন্য সরাষ্ট্র-মন্ত্রী জনাব জয়নাল ফারুক আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন।

এরই ভিতর রাজধানী ঢাকাকে এক প্রকার যোগাযোগ বিছিন্ন করা হয়েছে। কোনও দূরপাল্লার যানবাহনকেই ঢাকায় আসতে কিংবা ঢাকা হতে বের হতে দেওয়া হচ্ছেনা। ঢাকার প্রতিটি রাস্তায় অসংখ পুলিশ দেখা যাচ্ছে। সন্দেহ হওয়ার সাথে সাথেই পুলিশ বিভিন্ন লোক-জনকে গ্রেফতার করছে, প্রতিটি যানবাহনে চলছে চিরুণি তল্লাশি । আগামীকালকের জন্য বিভিন্ন শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে।
এদিকে সরকারের এ ধরনের পেশী-শক্তির সামরিক আচরণকে বিরোধী দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা গণতন্ত্রের মৃত্যু বলে মনে করছেন।

অপরদিকে বিভিন্ন ব্লগে আগামীকালকের আওয়ামীলীগের ” চল চল ঢাকা চল” কর্মসূচী ,প্রধান লেখালেখির বিষয়ে পরিণীত হয়েছে । ‘আওয়ামীলীগের নিজেদের স্বার্থ উদ্ধারের কর্মসূচীর কারণে জনগণ মানবিক বিপর্যয়ে’ , ‘বিরোধী দলের ফাও বিজ্ঞাপন’ , ‘ইনকা রাজারা, ক্যান্সারের ভয় আর আমাদের প্রধানমন্ত্রীরা (সম্রাজ্ঞীরা)’ , ‘ময়লা নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি আর কত দিন’ , ‘বোকা মার্কা পুলিশ দিয়ে ঢাকা শহর পাহারা ও জন দুর্ভোগ’ সহ বহু আকর্ষণীয় নামের পোস্টে ভরপুর সবগুলো পত্রিকা এবং ব্লগ । শেষ পর্যন্ত কী হয় আওয়ামীলীগের কর্মসূচীকে ঘিরে তা জানতে আমাদের অপেক্ষা করতে হবে আগামীকাল পর্যন্ত।
সে পর্যন্ত সবাই ভাল থাকবেন এই আশা নিয়ে বিদায় নিচ্ছি ।

অভাগা বাঙালি, সপ্ন টেলিভিশন