ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

এ সমাজের প্রত্যেকটি মানুষ কোন না কোন কাজের সাথে জড়িত। আর প্রত্যেকেই নিজে নিজের কাজটি করে তৃপ্তি পায়। কিন্তু তার কাজের মূল্যায়ন সে পায় অন্যের কাছ থেকে সে কাজটা ভালো হোক বা খারাপ হোক আমরা তার দোষ গুন নিয়ে সারাদিন ব্যস্ত চা এর দোকান থেকে আমাদের জাতীয় সংসদ পর্যন্ত। আমরা কী সঠিক ভাবে তার কাজের মূল্যায়ন করতে পারছি? না! আমরা মনে হয় আমরা তা পারছিনা।

আজ আগ্রাবাদ রোডের পাশদিয়ে হাটতে ছিলাম হঠাৎ একটি রিক্সার ধাক্কায় একজন বৃদ্ধ মাটিতে পরে গেল, না বৃদ্ধের তেমন কিছু হয়নি পাশ থেকেই একটি ছেলে এসে একটি নিরাপদ স্থানে তাকে বসিয়ে দিল।ঐ সাহায্য করা ছেলেটির সাথে অবশ্য আরো দু’‘জন ছিল, তিন জনই মনে হয় স্টুডেন্ট । বৃদ্ধ ছিল একজন ভিক্ষুক বয়ষ অনুমানিক ৮০ উদে।বৃদ্বের অসাবধানতায় এমনটা ঘটেছে কারন বৃদ্ধ ভালো ভাবে চোখে দেখতে পায়না।

আমি রোড পার হয়ে একটি ফাস্ট্ ফুডের ভিতরে ঢুকলাম কিছুক্ষণের মধ্যে ৌ তিন ছেলে এসে আমার পেছনের ছিটে বসে কিছু একটা খাবারের অর্ডার দিল, হঠাৎ ওদের ভিতর থেকে একজন বলে উঠল এই তুই আলাদা অর্ডার দে, সাহায্য করা ছেলেটি বলল, কেন? তখন একজনের উত্তর তুই ঐ ভিক্ষুক টাকে হাত দিয়ে ধরছিস ভিক্ষুক টার গায়ে অনেক ময়লা ছিল তুই আলাদা প্লেট নে, এবং ছেলেটি তাই করল । আমি ছেলেটির দিকে তাকিয়ে দেখলাম মনে হয় ওদের কথায় ছেলেটি খুব লজ্জা পেয়েছ। কেউ যদি ভালো কাজ করে আমরা তাকে সঠিক মূল্যায়ন করতে পারছি কি? উল্টো তাকে বোকা বানিয়ে দিচ্ছি। তাই আজ আমাদের সমাজে এরকম বোকা মানুষ খুব বেশি প্রয়োজন। আমরা এখন খুব চালাক হয়ে গেছি। তাই আমরা খুব সহজেই বুঝতে পারি কিভাবে মানুষকে ঠকাতে হয়। এই চালাকি আমাদের ভাবতে শিখিয়েছে যে কোন মূল্যে নিজের সুবিদা আদায় করতে হয়, তা অন্যের ক্ষতি করে । চালাক হয়েছি বলেই মানুষ ঠকানোকে খারাপ মনে করছিনা। অন্যায় কাজ করতে আমাদের বিবেক বাধা দেয় না, বরং মানুষকে ঠকাতে পারলে বা কোন অন্যায় করতে পারলে নিজেকে বুদ্বিমান ভেবে তৃপ্ত হই। আর অন্য দিকে, যারা নিজের ক্ষতি হলে মানুষকে ঠকানোর চিন্তা করে না বা অন্যায় করে না, সবসময় সবার ভাল চিন্তা করে-তাদের আমরা বলি “বোকা”!

এখন কী বলবেন ? আমাদের কী বোকা মানুষের খুব বেশি প্রয়োজন নয়!!!