ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

 

ঃ- ৭১’এর কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে যখন,দল-মত-পেশা নির্বিশেষে সারা দেশের সকল স্তরের মানূষ শাহবাগের উত্তাল গনজাগরন মঞ্চের সাথে একিভূত ও একাত্ন ,তখন ও ৭১ ও ৭৫ এর খুনীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় ও প্রতিষ্ঠা দান কারী,রাজাকার নির্ভর এবং রাজাকার বান্ধব খালেদা জিয়া এবং তার দল বিএনপি’র নেতাদের এই মর্মে কিছু বেসামাল,অসংলগ্ন ও আবোল-তাবোল উক্তি ঃ-

১) বিএনপি ক্ষমতায় গেলে সকল মানবতা বিরোধী অপরাধের বিচার করবে – গতকাল (১৭/২/১৩)নয়া পল্টনে বিএনপি’র নেতারা।
মন্তব্য-“কোন কিছুকে যদি দাবিয়ে দিতে চাও,তাহলে এর সাথে আরো অনেক কিছু জুড়ে দাও এবং একসাথে গুলিয়ে ফেলে হালকা করে দাও”- এ পসঙ্গে ইহা বিএনপি’র এমনই একটা অপকৌশল মাত্র।

২) বি এন পি ও ‘প্রকৃত’ যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চায় ‘তবে’ সে বিচার হতে হবে নিরপেক্ষ ও আন্তর্জাতিক মানের।
মন্তব্য –পাঠক লক্ষ করুন ‘প্রকৃত’ ‘তবে’ এবং ‘নিরপেক্ষ ও আন্তর্জাতিক মানের’ !!!
প্রশ্ন জাগে,যাদেরকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়েছে, তারা কি খালেদা জিয়াদের এই ‘প্রকৃত’ এর মধ্যে পড়েনা ? তাহলে তাদের এই ‘প্রকৃত’ কারা ? আর কি কি করলে এদের এই বিচার তাদের কথিত ‘নিরপেক্ষ ও আন্তর্জাতিক মানের’ হয়,এমন কোন ভূমিকা কি তারা রেখেছেন ?

৩) তারা ও বিচার চান ‘যদি’ জামায়াত-শিবির ——
মন্তব্য- –পাঠক লক্ষ করুন এখনো তারা বলছেন- ‘যদি’(!!!)।
আসলে খালেদা জিয়া এবং তার দলীয় নেতাদের এমন মন্তব্য-বক্তব্য ৭১ এর কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে,তাদের ভিতরের তীব্র ক্ষোভ এবং মর্মজ্বালারই বহিপ্রকাশ মাত্র। “কইতেও পারিনা আবার সইতেও পারিনা”- এমনতর বাস্তবতার কারনেই তাদের এসব বেসামাল,অসংলগ্ন এবং আবোল-তাবোল বকা। বঙ্গবন্ধুর খুনীদের বিচারের বেলাতেও তারা ঠিক একই রকম অপকৌশলের আশ্রয় নিয়ে একই রকম (প্রকৃত,নিরপেক্ষ,সকল হত্যার বিচার ইত্যাদি) বকেছিলেন।

*** ৭১ এ আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী অবস্থানে কিন্তু কেবল জামায়াত-শিবিরই ছিলোনা। মুসিলিম লীগ সহ আরো অনেক দল ও মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে জামায়াত-শিবিরের মতোই পাকিস্তানি হানাদারদের নানানভাবে সহায়তা করেছিল।৭৫ এর পর এরা সবাই জিয়াউর রহমানের দল বিএনপি তে একিভূত হয়ে যায়। এরা এবং এদের বংশবদতো এখনো বি এনপি’র প্রানশক্তি। সুতরাং এই বিএনপি শাহবাবগের গনজাগরনের সাথে একাত্ন প্রকাশ করতে পারেনা। চাপে পরে যদি করেও তা কোন দিনই আন্তরিক হতে পারেনা।