ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

বর্তমানের বিএনপি নেতা ( বর্তমানের-এ কারনে যে অতীতে তিনি অনেক দলেই ছিলেন এবং আবার যে কোন দিন,যে কোন সময় অন্য যে কোন দলের হয়ে যেতে পারেন ) ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ,তার সাক্ষাৎকারে (সূত্র-প্রথম আলো ০২/৬/১১ উপসম্পাদকীয়)বলেছেন-”সুপ্রিম কোর্টের কোনো রায় সংসদ বা জনগনের ওপর বাধ্যতামূলক নয়।সংবিধানের কোথাও লেখা নেই যে সুপ্রিম কোর্টের কোনো রায় জনগন মানতে বাধ্য বা সংসদ মানতে বাধ্য”।সংসদের কথা বলতে পারবো না,কিন্ত সুপ্রিম কোর্টের কোনো রায় জনগন মানতে বাধ্য নয়!!এ কেমন নৈরাজ্যকর কথা! তাহলে কেন এই আইন,এই আদালত এবং এই বিচার ব্যবস্থা! তাহলে দেশের উচ্চ আদালতের এতসব রায়, জেলদণ্ড,মৃত্যুদণ্ড,যাবজ্জীবন,ইত্যাদি সবই কি অর্থহীন এবং এসব কি সংশ্লিষ্টরা না মানলেও পারতো?

আসলেই কি তাই ? না কি তা,ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য অস্থির এবং বেসামাল হয়ে পড়া মওদুদ আহমেদ দের,দেশের মানূষের প্রতি নৈরাজ্য সৃষ্টিকারী এক ধরনের উস্কানি বিশেষ ? কেননা সুপ্রিম কোর্টের রায় প্রসঙ্গে,জনাব মওদুদ সাহেবের মতো এমন একজন অন্যতম শীর্ষ আইনজ্ঞের এমনতর আইনী ব্যাখ্যার পর, দেশের মানূষের মধ্যে,উচ্চ আদালতের যে কোন রায়,অবজ্ঞা করার বা না মানার একটা প্রবনতা বলীয়ান হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা সৃষ্টি হবে।

ব্যাপারটির অপঃগুরুত্ব বিবেচনায় আমাদের প্রতিথযশা আইনবিদ এবং মাননীয় সর্বোচ্চ আদালতের তা আমলে নেয়া দরকার এবং এ প্রসঙ্গে তড়িৎ ও যথাযথ ব্যাখ্যা দেয়া দরকার।