ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

ভারতের মতো দেশের প্রধানমন্ত্রী এবং মনমোহন সিং এর মতো বিশ্বব্যাংকের একদার শীর্ষ খ্যাতনামা ব্যক্তিদের, সর্বমোট ৫ কোটি রুপির সম্পদ আর ১৯৯৬ মডেলের ৮০০ সিসি’র একটি মারুতি গাড়ী!!পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব বসু থাকতেন দুই রুমের একটি ফ্লাট বাড়ীতে। বর্তমান মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ও তাই।ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ীতে এসি নাই, ঘুমান ফেনের বাতাসে। এগুলিই পার্শ্ববর্তী ভারতের খবর।আর অন্যদিকে আমাদের প্রধানমন্ত্রী-মন্ত্রী-পাতিমন্ত্রী,নেতা-পাতিনেতা এবং বড়-মাঝারি-ছোট আমলাদের অবস্থা—–? বলার কি আর দরকার আছে?

নেতা-সাংসদ এমনকি আতি-পাতি নেতারাও,চলেন কোটি টাকার ‘পাজেরো-বিএমডাব্লিউতে। তাতেও মান রক্ষা হয়না। সাথে থাকে ‘গাড়ি বহর’।পত্রিকায় খবর হয় “অমুক নেতার গাড়ি বহর-অমুক ভাই এর গাড়ি বহর”। কার বহরে কত গাড়ি-ইহা যেন এক প্রেস্টিজ ইস্যু (ইদানিং আবার ‘বহরে গাড়ির সংখ্যা বাড়ার সাথে পাল্লা দিয়ে ‘গাড়িবহরে’ হামলার আধিক্যও যেন বেড়ে গিয়েছে)। তাই নির্বাচনী অঙ্গীকার যতই থাকুক না কেন, সম্পদের হিসাব তারা প্রকাশ করেন কি করে ? ২০/২৫ বছর আগেও তারা কে কি ছিলেন,কি ছিলো তাদের অর্থবিত্ত-এর সাথে বর্তমানের অবস্থা এবং নামে বেনামে ধন-সম্পদ ও অর্থবিত্তের বিশালতার, বিশাল ফারাক-কি জবাব দেবেন এর!!তাই হিসাব তারা দেন কি করে ? অন্ততঃ এই লজ্জা-শরমটুকু এখনো তাদের বিদ্যমান আছে।আমাদের জন্য ইহাই বা কম কিসে!